টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী দেশ

qatarচট্টগ্রাম, ১৯ সেপ্টেম্বর (সিটিজি টাইমস):  উচ্চ মাথাপিছু আয়ের ভিত্তিতে বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী দেশের তালিকা প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইটসজিআরনাইন নামের একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের বিভিন্ন খাতের শীর্ষ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের তালিকা তৈরি করে। ধনী দেশের এ তালিকা তৈরিতে জনসংখ্যার অনুপাত, আয়-ব্যয়ের পরিমাণকে মাপকাঠি হিসেবে ধরা হয়। এ বছর শীর্ষ ধনী দেশের জায়গা দখল করেছে মধ্যপ্রাচ্যের উপদ্বীপ খ্যাত কাতার।

১. কাতার: ইটসজিআরনাইনের তথ্য অনুযায়ী দেশটিতে ২০ লাখের বেশি মানুষ বসবাস করছে। কাতারের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ২০ হাজার কোটি ডলার। মাথাপিছু আয় ৯৩ হাজার ৪০০ ডলার। কাতারের অর্থনীতি মূলত জ্বালানি তেলের ওপর নির্ভরশীল। দেশটির রফতানি আয়ের ৮৫ ভাগই আসে পেট্রোলিয়াম থেকে। বিশ্বের অন্যান্য দেশকে পেছনে ফেলে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটি তালিকার শীর্ষ জায়গা দখল করেছে।

২. লুক্সেমবার্গ: ইউরোপের সবচেয়ে উন্নত দেশগুলোর একটি লুক্সেমবার্গ। করের স্বর্গ হিসেবে পরিচিত এই দেশটিতে বিশ্বের অন্যান্য দেশের ধনকুবের ব্যবসায়ীরা বসবাসের জন্য বেছে নেন লুক্সেমবার্গকে। বর্তমানে দেশটির মাথাপিছু আয় এক লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার।

৩ সিঙ্গাপুর: দ্বীপ রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত সিঙ্গাপুরের জনসংখ্যা মাত্র ৫৫ লাখ। দেশটির মাথাপিছু আয় ৫৬ হাজার ডলার। এশিয়ার অন্যান্য দেশের পারস্পরিক ব্যবসা-বাণিজ্যিক কেন্দ্র সিঙ্গাপুর। এক সময়ের জেলে পল্লী থেকে দেশটি এখন এশিয়ার অন্যতম উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

৪ নরওয়ে: ইটসজিআরনাইনের শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় চতুর্থস্থানে রয়েছে নরওয়ে। দেশটির মাথাপিছু আয় ৯৭ হাজার ৩৬৩ ডলার। বিশ্বব্যাপী টেলিযোগাযোগ ব্যবসায় দেশটির রয়েছে বিশাল বিনিয়োগ। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের মালিকানা প্রতিষ্ঠান এই দেশটির টেলিনর গ্রুপের।

৫ হংকং: বিশ্বের পঞ্চম ধনী দেশের তালিকায় স্থান পেয়েছে হংকং। হংকংয়ের মাথাপিছু আয় ৪০ হাজার ডলার। এশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিনিয়োগকারীদের এই দেশটিতে বিনিয়োগে ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে।

৬ ব্রুনেই দার এস সালাম: এ দেশটি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যতম ধনী। মাথাপিছু আয় ৫০ হাজার ৪০০ ডলার। জ্বালানি তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস দেশটির আয়ের প্রধান উৎস।

৭ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র: বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী রাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তালিকায় সপ্তম স্থান দখল করেছে। উচ্চ প্রযুক্তি, অস্ত্র রফতানি থেকে দেশটির আয়ের সিংহভাগ আসে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মাথাপিছু আয় ৫৪ হাজার ৬২৯ ডলার।

৮ সংযুক্ত আরব আমিরাত: বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির বার্ষিক মাথাপিছু আয় ৪৮ হাজার ৪০০ ডলার। প্রাকৃতিক গ্যাস, জ্বালানি তেল, খেজুর রফতানিই দেশটির আয়ের প্রধান উৎস।

৯ সুইজারল্যান্ড: ইটসজিআরনাইনের তথ্য অনুযায়ী, ইউরোপের অন্যতম ধনী দেশ সুইজারল্যান্ডের মাথাপিছু আয় ৮৫ হাজার ডলার। কৃষি, পর্যটন, ব্যাংকিং, ঘড়ি, চকলেটসহ বিভিন্ন পণ্য রফতানি করে দেশটি।

১০ কুয়েত: শীর্ষ ১০ দেশের শেষের স্থানটি দখল করেছে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ কুয়েত। দেশটির বার্ষিক মাথাপিছু আয় ৪৩ হাজার ৭০০ ডলার।

মতামত