টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাউজানে দুই সন্তানের জননী খুন : স্বামী আটক

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ১৭ সেপ্টেম্বর (সিটিজি টাইমস):  চট্টগ্রামে রাউজানের দুই কন্যা সন্তানের জননীকে শশুর বাড়ীতে রাঙ্গামাটি জেলার কাউখালী উপজেলার ঘাঘরা এলাকায় গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বামী কর্তৃক ইলেকট্রিক শক দিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় রাউজান থানা পুলিশ স্বামীকে আটক করেছে। বৃহষ্পতিবার তাকে কোর্টে প্রেরণ করেছে। নিহত স্ত্রী টকি দে (২৮) রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ঢেউয়াপাড়া এলাকার বিজয় দে’র কন্যা। আটককৃত স্বামী বোয়ালখালী উপজেলার খোকা দেওয়ানজির ছেলে বাবলু দেওয়ানজি। তারা রাঙ্গামাটি জেলার কাউখালীর উপজেলায় ঘাঘরা বাজারের পাশে নিজস্ব বাড়ি করে বসবাস করে আসছিল।

নিহতের মা লক্ষী দে অভিযোগ করে বলেছেন স্বামী বাবলু দেওয়ানজি দীর্ঘদিন পরকীয়া প্রেমে আসক্ত ছিলেন। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া সৃষ্ঠি হতো। গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বামী বাবলু আমার মেয়ে স্ত্রী টকি দে’কে বিদ্যুতের শক দিয়ে হত্যা করে। এরপর সে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ঠে তার স্ত্রী মারা গেছে বলে প্রচার করে এবং তার লাশ রাত প্রায় সাড়ে ১০টার দিকে আমাদের বাড়ি (টকির দে’র বাপের বাড়ি) রাউজানের ঢেউয়াপাড়ায় নিয়ে আসে। এসময় আমাদের সন্দেহ হয়। সাথে সাথে রাউজান থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে স্বামী বাবলু দেওয়ানজিকে আটক করে।’ রাত সাড়ে ১১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রাউজান থানা ওসি (তদন্ত) মো. আলমগীর নিহতের বাবার বাড়ি রাউজানের ঢেউয়াপাড়ায় অবস্থান করছিলো। নিহতের মা লক্ষী দে বলেন ‘কলহের জের ধরে আমার মেয়েকে তার স্বামী বাবলু প্রায় সময় নির্যাতন করতো। অনেক সময় নির্যাতনের কারনে অসুস্থ হয়ে গেলে তাকে এখানে এনে চিকিৎসা করিয়েছি।’

তবে স্ত্রী হত্যার কথা অস্বীকার করে স্বামী বাবলু দেওয়ানজি বলেন ‘আমার স্ত্রী বিদ্যুৎ স্পৃষ্ঠে মারা গেছে। সে যখন ঘরে বিদ্যুৎ বিদ্যুৎ স্পৃষ্ঠ হয় তখন আমি আমার মুদির দোকানে ছিলাম। খবর পেয়ে ঘরে এসে তাকে হাসপাতালে নিই। সেখানে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জানা যায়, নিহতের প্রেমা (৭) ও মনি (৩) নামের দুই কন্যা সন্তান রয়েছে।

মতামত