টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর যুবলীগের হামলা আহত ৪

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ১৪ সেপ্টেম্বর (সিটিজি টাইমস):   উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর বাজারে ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর হামলা করেছে যুবলীগ কর্মীরা। রবিবার রাত সাড়ে ৮টায় দুর্গাপুর বাজারে হামলায় আহত হয় দুর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান (২২), প্রচার সম্পাদক ফয়জুল ইসলাম অনিক (২০), কাটাছরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন (১৮), সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক নিজাম উদ্দিন (১৮)। আহতদের রবিবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মস্তাননগর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এমরান হোসেন সোহেল বলেন, মাদক নিয়নন্ত্রণ, ইভটিজিং প্রতিরোধে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও বাজারে ছাত্রলীগের কর্মীরা কাজ করে আসছে। সম্প্রতি দুর্গাপুর বাজারে মাদক বিরোধী সমাবেশ করতে গেলে দুর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মো. আজিমের নেতৃত্বে এলাকার বখাটে ও মাদক ব্যবসায়ীরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করে। সন্ত্রাসীরা এসময় ক্রীজ, চুরি ও লাঠি দিয়ে ছাত্রলীগ নেতাদের উপর হামলা চালায়। হামলায় আরিফুর রহমান, ফয়জুল ইসলাম অনিক, শাহাদাৎ হোসেন, নিজাম উদ্দিন আহত হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায়। সোমবার দুপুরে আহতরা বাদি হয়ে জোরারগঞ্জ থানায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দিয়েছেন বলেও তিনি জানান।

এই বিষয়ে দুর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মো. আজিম উদ্দিন বলেন, গত শনিবার রাতে দুর্গাপুর বাজারে ইছাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কর্মী মো. রনি দুর্গাপুর বাজারে তার বোনের বাড়িতে বেড়াতে আসলে স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা অনিক, আরিফ, শাহীন, মহিউদ্দিন, শাহাদাতের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতারা তার উপর হামলা করে। হামলার বিষয়ে তাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলে, রনি তার ফেইসবুক স্ট্যাটাসে উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেছে। এরূপ মন্তব্য না করার জন্য তাকে সর্তক করা হয়েছে। হামলার পর তারা বাজারে মিছিল দিয়ে বলে যায় উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এমরান হোসেন সোহেলের নেতৃত্বের বাইরে দুর্গাপুর বাজারে কেউ আসতে পারবেন না; আসলে আর যেতে পারবেনা। শনিবার এমন স্লোগানের পর রবিবার রাতে স্থানীয় দুর্গাপুর, মিঠানালা, কাটাছরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ-যুবলীগের কর্মীরা আরিফুর রহমান, ফয়জুল ইসলাম অনিক, শাহাদাৎ হোসেন, নিজাম উদ্দিনের উপর হামলা করে। হামলার সময় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা আমাকে ডাকলে আমি গিয়ে উভয় পক্ষকে নিভৃত করার চেষ্টা করি। মাদক নিয়ে ছাত্রলীগের কর্মীদের উপর আমার নেতৃত্বে হামলা হয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এমরান হোসেন সোহেলের এমন বক্তব্য তিনি অস্বীকার করেন।

জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিপুল দেবনাথ বলেন, দুর্গাপুর বাজারে হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলতেছে। মামলা দায়েরের পর ঘটনার তদন্ত পূর্বক আসামীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মতামত