টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পার্থে বাংলাদেশের শোচনীয় পরাজয়

spচট্টগ্রাম, ৩ সেপ্টেম্বর  (সিটিজি টাইমস) :২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপের এশিয়া অঞ্চলের বাছাইপর্বে বাংলাদেশকে ৫-০ গোলের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।

প্রথমার্ধ শেষে স্বাগতিকরা ৪-০ গোলে এগিয়ে থাকে। দ্বিতীয়ার্ধে আরো একবার বাংলাদেশের জালে বল জড়ায় অজিরা।

অস্ট্রেলিয়ার এনআইবি স্টেডিয়াম,পার্থে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টায় মাঠে নামে দুই দল।

ম্যাচের শুরু থেকেই বাংলাদেশের ডিফেন্সকে ব্যস্তু রাখে অজিরা। প্রথম ৮ মিনিটেই দুই গোল খেয়ে বসে লাল সবুজের জার্সিধারীরা। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে প্রথম লিড নেয় স্বাগতিকরা।

২৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড ম্যাথিউ লেকির গোলে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। দুই মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করেন অজিদের হয়ে ১১ ম্যাচ খেলতে নামা ২২ বছর বয়সী উঠতি তারকা পিটার রোজিক। সেল্টিকের সাবেক এ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার ম্যাচের ২০ মিনিটের মাথায় তৃতীয় গোলটি করেন। এর মধ্য দিয়ে তিনি নিজের জোড়া গোল পূর্ণ করেন।

ম্যাচের ২৬ মিনিটে আবারো আক্রমণ চালায় অজিরা। তবে গোলবারের বাইরে দিয়ে বল চলে যাওয়ায় এ যাত্রায় বেঁচে যায় বাংলাদেশ। এক মিনিট পরেই রোজিকের জোরালো শট রুখে দেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক শহিদুল আলম। দারুণ এক ড্রাইভে তিনি বল নিজের গ্লাভসবন্দি করেন।

তবে শহিদুলের আরেকটি দারুণ প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন অজিদের হয়ে ১৩ ম্যাচ খেলতে নামা ২৭ বছর বয়সী অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার নাথান বার্নস। ডানপাশ দিয়ে আক্রমণে ঢোকা উড়ন্ত বলে প্রতিপক্ষের একজন ডেড করলেও শহিদুল তা রুখে দেন। কিন্তু হাত ফসকে বল বেরিয়ে গেলে ফিরতি বলে শট নেন বার্নস। তাতে চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশের জালে বল জড়িয়ে যায়।

প্রথমার্ধে নিজেদের অর্ধ সামলাতেই অতিথিদের এগারোজনকে ব্যস্ত থাকতে হয়।

ম্যাচের ৩৭ মিনিটের মাথায় হেমন্তকে মাঠ থেকে তুলে নেওয়া হয়। তার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন মোনায়েম রাজু। হেমন্ত কিছুটা অসুস্থ থাকার পরও খেলতে নেমেছিলেন।

সাড়ে ১৯ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে আবারো নিজের দারুণ পারফর্ম দেখান শহিদুল। বাংলাদেশের ডি-বক্সের অল্প বাইরে থেকে ফ্রি-কিক লাভ করে অজিরা। স্বাগতিকদের নেওয়া সরাসরি শট নিজের নিয়ন্ত্রণে নেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক শহিদুল।

প্রথমার্ধের বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে ৪-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় অস্ট্রেলিয়া।

বিরতির পর আবারো বাংলাদেশের সীমানায় আক্রমণ চালাতে থাকে অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে নাসিরুল নাসিরের বদলি হিসেবে মাঠে নামেন ইয়ামিন চৌধুরী।

আগ্নে গোস্তেকোগলুর শিষ্যরা দ্বিতীয়ার্ধের ৬১ মিনিটের মাথায় আবারো এগিয়ে যায়। ব্যবধান ৫-০তে নিতে গোল করেন মেলবোর্ন সিটির ২৪ বছর বয়সী সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার অ্যারনময়।

খেলার ৬২ মিনিটে প্রথম গোলদাতা ম্যাথিউ লেকির বদলি হিসেবে মাঠে নামেন ক্রিসটোফার। আর দুই গোল করা পিটার রোজিকের বদলি হিসেবে নামেন টিম কাহিল।

৭১ মিনিটে কাহিলের একটি কোনাকুনি শট রুখে দেন শহিদুল। ৭৬ মিনিটে মার্ক মিলিগানের বদলি হিসেবে অজিদের হয়ে মাঠে নামেন জ্যাকসন আরভিন। এ সময় অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড হাতে পড়েন কাহিল।

৭৮ মিনিটে বার্নসের হেড থেকে কোনো গোল হতে দেয়নি বাংলাদেশের ডিফেন্স।

৮৩ মিনিটের মাথায় আরভিনের একটি দূর-পাল্লার শট বাংলাদেশের গোলবারে লেগে ফিরে যায়। ৮৫ মিনিটে বাংলাদেশের এনামুল হকের বদলি হিসেবে মাঠে নামেন আবদুল বাতেন কমল। ৮৭ মিনিটে ময়ের একটি দুর্বল শট রুখে দেন শহিদুল।

ম্যাচের বাকি সময় আর কোনো গোল না হলে ৫-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।

প্রথম লেগের এ খেলায় শক্তির বিচারে অজিরা এগিয়ে। সর্বশেষ প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে অজিদের অবস্থান ৬১তম। আর মাঠে নামার কয়েক ঘণ্টা আগে বাংলাদেশ দল তিনধাপ নেমে ১৭৩তম অবস্থানে চলে যায়।

এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এই প্রথম মাঠে নামে বাংলাদেশ। শক্তির বিচারে অজিরা অনেক এগিয়ে থাকলেও মামুনুল-এমিলিরা নির্ভীক। তাদের হারানোর কিছু নেই।

২০১৫ সালে এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া। এবার তারা চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপে অংশ নিতে দৃষ্টি রাখছে। গত ১৭ জুন রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় পায় এশিয়া অঞ্চলের পরাশক্তিরা।

অন্যদিকে, ঘরের মাঠে বাছাইপর্বের প্রথম দুই ম্যাচে জয়হীন বাংলাদেশ। তাজিকিস্তানের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করলেও অপর ম্যাচে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে ৩-১ গোলে হার মানে মামুনুলরা।

বাংলাদেশের বিপক্ষে নামার আগে নিজেদের সর্বশেষ পাঁচটি আন্তর্জাতিক ম্যাচের মধ্যে তিনটিতে জয় ও বাকি দুই ম্যাচে ড্র করে অস্ট্রেলিয়া।

অন্যদিকে, শেষ পাঁচ ম্যাচের মধ্যে কিরগিজস্তান ও সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে হার মানে বাংলাদেশ। তাজিকিস্তানসহ বাকি তিনটি ম্যাচ ড্র হয়। গত ২৯ আগস্ট মালয়েশিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করে বাংলাদেশ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত