টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পদত্যাগ করবেন না নাজিব, জাতীয় ঐক্যের ডাক

wচট্টগ্রাম, ৩১ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) ::পদত্যাগ দাবিতে মালয়েশিয়ায় যে বিক্ষোভ চলছে, সে দাবি অস্বীকার করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। একই সঙ্গে তিনি জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন।

মালয়েশিয়ার জাতীয় দিবস উপলক্ষে এক ভাষণে রাজাক বলেন, ‘একটি গণতান্ত্রিক দেশে মত প্রকাশের ক্ষেত্রে এই ধরনের বিক্ষোভ সঠিক পন্থা নয়।’

তিনি বলেন, ‘গণবিক্ষোভ অপরিপক্বতার প্রতীক। দেশের অধিকাংশ মানুষ তার সরকারকে সমর্থন করে।’

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সবার মনে রাখা উচিত, ঐক্যবদ্ধ না থাকলে সংহতি ও একতা হারাব।’

বিক্ষোভকারীদের প্রতি হুঁশিয়ারিও দেন তিনি। এর আগে উপপ্রধানমন্ত্রী জাহিদ হামিদি বিক্ষোভের আয়োজকদের শাস্তির আওতায় আনার হুঁশিয়ারি দেন।

রাজাকের পদত্যাগের দাবিতে গতকাল রবিবার দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভে উত্তাল ছিল রাজধানী কুয়ালালামপুর। শহরের স্বাধীনতা স্কয়ারে হলুদ টি-শার্ট পরে অন্তত ২৯,০০০ মানুষ বিক্ষোভ করে।

প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় তহবিল থেকে ৭০ কোটি মার্কিন ডলার আত্মসাতের অভিযোগে গত শনিবার থেকে দুদিনের বিক্ষোভ শুরু করে মানবাধিকার সংগঠন বেরসিহ (মালয় শব্দটির অর্থ ‘পরিষ্কার’)।

তাদের এই বিক্ষোভে যোগ দেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদও। গতকাল বিক্ষোভের দ্বিতীয় দিনে সকাল থেকে বিক্ষোভকারীরা পরিকল্পনামতো হলুদ শার্ট পরে কুয়ালালামপুরের স্বাধীনতা স্কয়ারে নতুন করে জড়ো হতে থাকে।

পুলিশ বিভিন্ন সড়কের মুখ অবরোধ করে ওই স্কয়ার ও এর আশপাশে বিক্ষোভকারীদের জড়ো হতে বাধা দেয়। তবে এখন পর্যন্ত সরিয়ে দেয়নি পুলিশ।

আয়োজকদের দাবি, নানা বাধা উপেক্ষা করে অন্তত তিন লাখ মানুষ বিক্ষোভে যোগ দিয়েছে। তবে পুলিশ বলছে, বিক্ষোভকারীর সংখ্যা ছিল ২৫,০০০।

পুলিশের কঠোর অবস্থান সত্ত্বেও প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনেও বিক্ষোভ ছিল শান্তিপূর্ণ। বিক্ষোভকারীরা রাজাকের বিকৃত ছবি, কার্টুন ও তার পদত্যাগের দাবিসংবলিত স্লোগান লেখা ব্যানার ও প্ল্যা-কার্ড নিয়ে বিক্ষোভ করে।

শনিবার বিক্ষোভের প্রথম দিনেও হাজারো মানুষ রাজপথে নামে। তারা স্বাধীনতা স্কয়ারে জড়ো হয়ে নাজিব রাজাকবিরোধী নানা স্লোগান দেয়। সন্ধ্যার দিকে বিক্ষোভকারীর সংখ্যা কিছু কমে আসে। রাতেও ওই স্কয়ার ও এর আশপাশে ছিল অনেক বিক্ষোভকারী।

রাতে আকস্মিকভাবে বিক্ষোভকারীদের সামনে হাজির হন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মাদ। তাকে দেখে উল্লাস প্রকাশ করে বিক্ষোভকারীরা। মাহাথির তাদের বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।

গতকাল রবিবারও কুয়ালালামপুরের সেন্ট্রাল মার্কেট এলাকায় বিক্ষোভে যোগ দেন মাহাথির। এ সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে প্রধানমন্ত্রী নাজিবের পদত্যাগ দাবি করেন তিনি।

তবে পদত্যাগ না করার অবস্থানে অটল আছেন প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। তিনি শুরু থেকেই তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

সূত্র: বিবিসি

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত