টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

খুন-গুমে আন্তর্জাতিক তদন্ত চাইলেন খালেদা

চট্টগ্রাম, ৩০ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশে আজ কোনো গণতন্ত্র নেই।রাজনৈতিক দলগুলো তাদের সভাসমাবেশ করতে পারছে না। এমনকি মানুষের কথা বলার অধিকার নেই।

দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাহিনীগুলোকে কেবল বিএনপির বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে সরকার।

এই সরকারের আমলে দেশে অসংখ্য গুমের ঘটনা ঘটেছে।যার কোনো তদন্ত হচ্ছে না। ভুক্তভুগিরা কোনো বিচার পাচ্ছে না। বিএনপিকে নেতৃত্বশূন্য করার চক্রান্ত করা হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আজ সন্ধ্যায় “তদন্ত অপেক্ষা, বাংলাদেশে খুন গুম ২০০৯-২০১৫ শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করার সময় খালেদা জিয়া বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করতে পারছি না। অথচ ক্ষমতাসীনরা অবাধে সভা-সমাবেশ করে যাচ্ছেন।রাস্তায় বের হলেই আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।

এটা কি কোনো গণতন্ত্রের নমুন।আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের দিয়ে পেট্টলবোমা হামলা চালিয়ে এই সরকার বিএনপিও ওপর দায় চাপিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। যাকে তাকে ধরে জেলে ঢুকিয়ে দেয়া হচ্ছে। এভাবে দেশ চলতে পারে না।

এই সরকারের আমলে কোনো বিচার ও কোনো ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সম্ভব নয়। তাই আমি খুন ও গুমের ঘটনার আন্তর্জাতিক তদন্ত চাই। খুন গুমের ঘটনা বিচারের ব্যাপারে তিনি দৃঢ় মনোভাব প্রকাশ করে বলেন, একদিন না একদিন এর বিচার হবেই হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ আমলেই খুন – গুমের ঘটনা শুরু হয়েছে। তিনি অপরাধীদের শাস্তির দাবি জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশর নিরপেক্ষ লোক দিয়েও এসব খুন গুমের ঘটনার তদন্ত করা সম্ভব। এসময় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে খুন গুমের শিকারদের স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত