টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাঙ্গুনিয়ায় ভয়াবহ নদী ভাঙ্গনের কবলে মধ্য বেতাগী ও চন্দ্রঘোনা কাটাখালী সড়ক

আব্বাস হোসাইন আফতাব
রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

Abbas-Rangunia-bangon-picচট্টগ্রাম, ২৮ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) ::  প্রবল বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলে রাঙ্গুনিয়ায় বন্যার পানি নেমে গেলেও নদী ভাঙ্গন তীব্র রূপ ধারন করেছে। ভাঙ্গন নদী তীরবর্তী এলাকার বাসিন্দারা চরম আতংকে বসবাস করছে। ভয়াবহ ভাঙ্গনের কবলে রয়েছে বেতাগী ইউনিয়নের মধ্য বেতাগীর বিস্তীর্ন এলাকা ও চন্দ্রঘোনা কাটাখালী খালের কাটাখালী সড়ক। বেতাগীর গোলাম ব্যাপারী হাট জামে মসজিদ, শতশত একর ফসলী জমি, শতবর্ষী বাজার ও বাড়িঘর হুমকির মুখে রয়েছে। এক সময়ের প্রাচীন বাজার গোলাম ব্যাপারী হাটের অর্ধেকেই নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। নদী গর্ভে চলে গেছে কৃষকরে ৫০ কানি ধানি জমি। পানিতে তলিয়ে গেছে বহু বাড়িঘর। প্রতিনিয়ত ভাঙ্গনে বাপ দাদার ভিটে বাড়ি চলে যাচ্ছে এলাকার লোকজন। নদীর তীরে রয়েছে মধ্য বেতাগীর ৩ নং ওয়ার্ড দক্ষিন-পশ্চিম বিল, বেতাগী রহমানিয়া মাদ্রাসা, হাফেজ বজলুর রহমানের মাজারসহ অসংখ্য স্থাপনা। অতিসত্বর ভাঙ্গন ঠেকাতে না পারলে এলাকার শত শত ঘর বাড়ি ও ফসলীজমি সহ বিভিন্ন স্থাপনা অচিরেই বিলীন হয়ে যাবে বলে জানান স্থানীয়রা।

এদিকে চন্দ্রঘোনা কাটাখালী এলাকার মো. সোহেল (২৯) জানান, পাহাড়ী ঢলে কর্নফুলি নদী সংলগ্ন কাটাখালী খালের কাটাখালী সড়ক নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার পথে। শীঘ্রই নদী ভাঙ্গন রোধ করা না গেলে পানিতে তলিয়ে যাবে সড়ক। ভেঙ্গে পড়বে যোগাযোগ ব্যবস্থা। মরিয়ম নগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. সেলিম বলেন, মরিয়ম নগর কাটাখালী এলাকার সড়ক ও অর্ধ শতাধিক বাড়িঘর হুমকির মুখে। অতিসত্বর ব্লক বসিয়ে ভাঙ্গন প্রতিরোধ করা না গেলে এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার মারাত্বক বিপর্যয় ঘটবে। বেতাগী দরবারে আস্তানা শরীফের সাজ্জাদানশীন মাওলানা গোলামুর রহমান রহমান আশরাফ শাহ জানান, কর্নফুলি নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে প্রাচীন মসজিদ, বাজারসহ বহু স্থাপনা। অতি দ্রুত ব্লক বসিয়ে ভাঙ্গন ঠেকাতে না পারলে ফসলিজমি, বাজারসহ মসজিদ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে। হারিয়ে যাবে মধ্য বেতাগীর বিশাল এলাকা। বেতাগী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পেয়ারুল হক চৌধুরী স্বপন জানান, নদী ভাঙ্গনে ইতিমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে শতশত একর চাষী জমি। এসময় নদী ভাঙ্গন ঠেকানো গেলে রক্ষা হবে মধ্য বেতাগীর ৬০ একর ধানি জমি ও শতাধিক ঘরবাড়ি। রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম মজুমদার জানান, ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রকল্প গ্রহনের পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত