টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

দুবাইতে থেমে গেল লোহাগাড়ার প্রবাসী জানে আলমের জীবনের স্পন্দন

আবদুল আউয়াল জনি
লোহাগাড়া-সাতকানিয়া প্রতিনিধি

J-A-1চট্টগ্রাম, ২৮ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :: দুবাইতে স্ট্রোকের থাবায় থেমে গেল বাংলাদেশি প্রবাসী চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার মোহাম্মদ জানে আলম (৩০) এর জীবনের স্পন্দন।

২৮ আগষ্ট শুক্রবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯ টার দিকে মৃত্যুবরন করেন তিনি দুবাই আবু হেল সেন্টার সুপার মার্কেটে কাজ করতেন।

মৃত মোহাম্মদ জানে আলম লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড এর নারিশ্চা গ্রামের মরহুম বশির আহম্মেদ এর ছোট ছেলে, এবং চুনতি ৮নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ফরিদুল আলমের ছোট ভাই, তিনি বিগত প্রায় ৩ বৎসর থেকে দুবাইতে কর্মরত আছেন কিন্তু ভিসা না থাকায় দেশে আসেননি জানে আলমের স্ত্রীর নাম তাতিয়া আক্তার তাদের সংসারে মাহিম নামের ৩ বছর বয়সি এক ছেলে আছে ।

মৃত মোহাম্মদ জানে আলম পাশের বাড়ির আরেক প্রবাসী দুবাই আবু হেল এরিয়ার মোহাম্মদ রিদোয়ান প্রতিবেদককে জানান তিনি ও জানে আলম একই এলাকায় থাকেন আজ ছুটির দিন থাকায় সবাই ঘুম থেকে দেরিতে উঠেন সকাল ১০ টার দিকে জানে আলমের রুম থেকে একজন রুমমেট আমাদের রুমে এসে বলে তোমাদের এলাকার জানে আলমের অবস্থা একটু দেখ ঘুম থেকে উঠছেনা আমরা দৌড়ে গিয়ে দেখি তার পুরো শরীর টান্ডা হয়ে গেছে তখন সাথে সাথে পুলিশকে ফোন করে জানালে পুলিশ এ্যাম্বুলেন্সে করে দুবাই আবু হেল এরিয়ার হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে মৃতদেহ বর্তমানে উক্ত হাসপাতালের হিমঘরে আছে তবে জানে আলমের ভিসা না থাকায় কবে নাগাদ লাশ দেশে পাটানো সম্ভব হবে জানিনা।

জানে আলমের মৃত্যুবরণের খবর ছড়িয়ে পড়লে তার পরিবারের সদস্যরা শোকে বিহবল হয়ে পড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পুরো গ্রামে মরদেহ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে তবে জানে আলমের ভিসা না থাকায় সব জটিলতা শেষ করে কবে নাগাদ লাশ দেশে পাটানো সম্ভব হবে জানা যায়নি।

মতামত