টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আল্লামা ফারুকীর খুনিদের বিচার দাবিতে চট্টগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন

chattra-senaচট্টগ্রাম, ২৬ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :: বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আল্লামা শায়খ নূরুল ইসলাম ফারুকীর (রহ) ২৭ আগস্ট ১ম শাহাদাতবার্ষিকী। গত বছরের এই দিনে ঢাকার রাজারবাজারের বাসায় জঙ্গি-ভাবাদর্শী বিকৃত মতাদর্শীদের হাতে তিনি নির্মমভাবে খুনের শিকার হন। এক বছর পেরিয়ে গেলেও আল্লামা ফারুকী খুনের কোনো কূল কিনারা করতে পারেনি সরকার। বারবার মামলার তদন্ত প্রক্রিয়ার বদল ছাড়া খুনিদের গ্রেফতার ও বিচারে সরকারি তৎপরতার দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা স উ ম আবদুস সামাদ।

আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকীর প্রকৃত খুনিদের গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ইসলামী যুব সেনা ও বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখার ৩ দিনব্যাপী প্রতিবাদ কর্মসূচির আজ ২৬ আগস্ট বুধবার দ্বিতীয় দিনে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন উত্তর জেলা ইসলামী ফ্রন্ট সাধারণ সম্পাদক পীরজাদা মাওলানা মুহাম্মদ গোলামুর রহমান আশরফ শাহ্।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা স উ ম আবদুস সামাদ বলেন, সরকারের আন্তরিকতা ও কঠোর পদক্ষেপের অভাবে এক বছর পেরিয়ে যাওয়া সত্ত্বেও আল্লামা ফারুকীর বিচার প্রক্রিয়া থমকে আছে। জঙ্গিবাদ বিরোধী সরকারের অভিযানের বাস্তব সুফল মিলছে না। সরকার জঙ্গিদের দমনে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ বলেই আফগানিস্তান-পাকিস্তান-সিরিয়া-ইরাকের মতো জঙ্গিবাদী তৎপরতার ঢেউ এদেশেও আছড়ে পড়েছে। যথাযথ প্রতিরোধ না হওয়ায় বাংলাদেশও এখন জঙ্গি প্রজননের উর্বর ভূমিতে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, ইসলাম চর্চার নামে মিডিয়ায় যারা যুগ যুগ ধরে চর্চিত ইসলামী কৃষ্টি সংস্কৃতির বিরুদ্ধে ও মাজার-ওলীদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটায় ওরাই পরিকল্পিতভাবে আল্লামা ফারুকীকে খুন করেছে। অথচ সরকার খুনিদের বিচারে মোটেই আগ্রহী নয়। তিনি ইসলামের অপব্যাখ্যা দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করায় পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধের দাবি জানান। ইসলামী ফ্রন্ট নেতা স উ ম আব্দুস সামাদ বলেন, স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় মুক্তচিন্তা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার বিপক্ষে আমরা নই। কিন্তু বিজ্ঞান মনস্কতা ও মুক্ত চিন্তার নামে ইচ্ছাকৃতভাবে অন্যের ধর্মানুভূতিতে আঘাত দেওয়া তা কখনো মুক্তচিন্তার আওতায় পড়ে না। মুক্ত চিন্তার নামে ব্লগাররা যা ইচ্ছা তাই প্রকাশ করার ফলে এই সুযোগে জঙ্গিরা উৎসাহিত হয়ে একের পর এক হত্যাকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। যা কেউ কামনা করে না। জঙ্গিবাদ ও নাস্তিক্যবাদিদের বিরুদ্ধে সরকারকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি দেশবাসীকেও আজ এদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার আহ্বান জানান তিনি। তিনি অবিলম্বে ফারুকী হত্যার সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান। না হয় আগামী দিনে তীব্র গণআন্দোলনের হুঁশিয়ারি ব্যক্ত করেন তিনি।

উত্তর জেলা ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ আমান উল্লাহ আমান ও সহ-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন ইসলামী ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক মুহাম্মদ আবু তালেব বেলাল, মাস্টার মুহাম্মদ আবুল হোসাইন, সৈয়দ মুহাম্মদ হোসেন, মুহাম্মদ এনামুল হক সিদ্দিকী, মাওলানা তৌহিদুল আলম আলকাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মুহাম্মদ মঈনুল আলম চৌধুরী, মাওলানা ইকবাল হোসেন আল কাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ এনাম রেজা, যুবনেতা এম.এ. মনসুর, মীর মুহাম্মদ হাবিব উল্লাহ, মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন, আব্দুল করিম সেলিম, মুহাম্মদ আলমগীর ইসলাম বঈদী, কেন্দ্রীয় ছাত্রসেনার নেতা সৈয়দ মনজুর মোরশেদ, এইচ এম শহিদুল্লাহ, মুহাম্মদ নুরুল্লাহ রায়হান খান, ছাত্রনেতা মুহাম্মদ আবু মুছা, হোসাইন মুহাম্মদ এরশাদ, মুহাম্মদ আব্দুর রহমান, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, মুহাম্মদ মফিজুর রহমান, আবুল ফয়েজ তুহিন, মুহাম্মদ ফরিদুল আলম, ক ম ফ ইকবাল হোসেন, মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, মুহাম্মদ আলমগীর প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে পীরজাদা গোলামুর রহমান আশরফ শাহ্ বলেন এদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ সুন্নি মতাদর্শী। এই দেশে নাস্তিক ব্লগার ও ধর্মীয় জঙ্গি উগ্রপন্থিদের ঠাঁই কখনো হবে না। তিনি আল্লামা ফারুকীর খুনিদের বিচারে সরকারি গড়িমসির তীব্র সমালোচনা করেন ।

অধ্যাপক আবু তালেব বেলাল বলেন, বাতিলদের তৎপরতার দুঃসময়ে আজ আলেম উলামাদের ঘরে বসে থাকার সুযোগ নেই। রাজনীতির ময়দানে এসে সত্যিকার দ্বীন প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে উলামা মাশায়েখদেরও দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে। পরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বর থেকে শুরু হয়ে এক বিক্ষোভ মিছিল চেরাগী পাহাড়, আন্দরকিল্লা হয়ে লালদীঘি ময়দানে গিয়ে শেষ হয়। হাজারো ছাত্রজনতা বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত