টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফারুকী হত্যার ঘটনায় সরকার ও প্রশাসনের এমন নিরবতা মেনে নেওয়া যায়না

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি 

Raozan-faruqee-somabes-picচট্টগ্রাম, ২৫ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য, চ্যানেল আই ইসলামী অনুষ্ঠানের জনপ্রিয় উপস্থাপক শহিদ আল্লামা নুরুল ইসলাম ফারুকী শহীদের ১ বছর পার হলেও হত্যাকারীদের গেপ্তারে প্রশাসনের নিরব ভুমিকার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের দ্রুত গ্র্রেপ্তারপুর্বক শাস্তির দাবিতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রিয় ছাত্রসেনা ঘোষিত কর্মসুচির অংশ হিসাবে গতকাল ২৫ আগস্ট বিকাল ৩ টায় বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনার উদ্যোগে নোয়াপাড়া পথেরহাট বাজারে এ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ” সরকার ও প্রশাসনের এমন নিরবতা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায়না। সরকারী দলের কর্মীকে হত্যা এবং ধর্মের বিরোদ্ধে আঘাতকারী নাস্তিক ব্লগারদের হত্যাকারীদের বিচারের ব্যবস্থা ও বিচার কাজ অতি অল্প সময়ে সম্পন্ন করছে সরকার। অথচ ইসলামের সঠিক তথ্য প্রচারকারী ও স্বাধীনতার স্ব-পক্ষের এমন একজন আলেমকে নির্মমভাবে হত্যা করার একটি বছর পর হলেও হত্যাকারীদের বিচার হওয়া দূরের কথা গ্রেফতারও করতে পারেনি। সুন্নি মুসলমান আল্লামা ফারুকীর হত্যার শোককে শক্তিতে রুপান্তর করেছে। এই হত্যাকান্ডের অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করতে সরকারের দ্বিমুখি মনোভাব সুন্নি জনতা মেনে নেবেনা। সরকারের প্রতি কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারন করে বলেন,থ “ছাত্রসেনার সৈনিকরা ফারুকি হত্যার বিচার না নিয়ে ঘরে ফিরবেনা। সরকার যদি এই মামলার অগ্রগতি না বাড়ায় তবে সরকারকে এর চরম মুল্য দিতে হবে।

যুবসেনা রাউজান উপজেলা (দক্ষিন) এর সভাপতি শওকত হোসেন রেজবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রসেনার সভাপতি আলমগীর হোসেন। বক্তব্য রাখেন, আঞ্জুমানে খোদ্দামুল মুসলেমিন নেতা আলহাজ্ব মাহাবুবুর রহমান হাবীবি, দক্ষিণ রাউজান গাউছিয়া কমিটির সভাপতি ব্যবসায়ী আহমেদ সৈয়দ, অধ্যাপক সৈয়দ জামাল উদ্দিন, আবুল কাশেম রেজবী, মাওলানা জিল্লুর রহমান হাবীবি, কেন্দ্রীয় ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক সৈয়্যদ গোলাম কিবরীয়া, মুহাম্মদ কামাল উদ্দিন, ছাত্রনেতা নজরুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন শাওন, সৈয়দ এরশাদুল হক মুন্না, আবুল হাসান হারকানী, মোহাম্মদ ফিরোজ, আব্দুর রহিম, কাজী শওকত উদ্দিন, আজিজ উদ্দিন, মোহাম্মদ আনিস, জহেদুল ইসলাম, মোহাম্মদ ফোরকান রেজা, শামসুল আরেফিন, ওয়াশিম আকরাম, ইলিয়াছ রেযা, রবিউল হোসাইন সুমন, আবু তৈয়্যব, এনামুল হক মুন্না, দিদারুল্লাহ হালিমি, রিদোয়ানুল হক, রবিউল হোসেন রাকিব, জয়নাল আবেদীন জাবেদ, কায়েস উদ্দিন, জানে আলম, সৈয়্যদ মোরশেদ, রুবেল হোসেন, তারেক হোসেন, প্রমুখ । এ সমাবেশে উরকিচর, নোয়াপাড়া, পুর্ব গুজরা, পশ্চিম গুজরা, বাগোয়ান, পাহাড়তলী ও কদলপুর ইউনয়ন ছাত্রসেনার সহস্রাধিক সেনাকর্মী অংশনেন। বিশাল বিক্ষোভ মিছিলটি নোয়াপাড়া খায়েজ শপিং সেন্টার হতে শুরু হয়ে কাপ্তাই সড়কের মাকসুদ কমিনিটি সেন্টার ও নোয়াপাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ প্রদক্ষিণ করে ভারতশ্বরী মার্কেটের সামনে এসে শেষ হয়।

মতামত