টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে এই দেশ স্বাধীন হত না: আ জ ম নাছির উদ্দিন

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি 

Raozan-suk-divos-news-picচট্টগ্রাম, ২৩ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন. জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৫৪ বছর বয়সের মধ্যে ১৪ বছরই জেল জুলুম অত্যচার সহ্য করে বাঙ্গালী জাতিকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করে অর্থনৈতিক মুক্তি আনায় ছিল তাঁর লক্ষ্য। এবং সে লক্ষ্যে তিনি বাস্তাবায়ন করেছেন।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে এই দেশ স্বাধিন হত না। যার সুদক্ষ নেতৃত্বের কারনেই এই বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধিন রাষ্ট্র বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এই মহান নেতা প্রতি যে গোষ্টি অশ্রদ্ধাবোধ করে তারা কখনো বাংলাদেশের মানচিত্র বিশ্বাস করে না। তারা এখনো নানাভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে এই দেশকে ধ্বংস করতে।

ঘাতকরা ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারকে শুধু হত্যা করেনি হত্যা করেছে পুরো বাঙ্গালীর স্বপ্নকে। কিন্তু বাঙ্গালী জাতির সেই স্বপ্ন আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বস্তবে রূপদিচ্ছে।

তিনি রাউজানের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের প্রশংসা করে বলেন- রাউজান উপজেলা সব দিয়ে এখন দেশের মধ্যে একটি মডেল উপজেলা। এখানকার সাংসদ এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী আমার বন্ধু। তিনি তার যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে রাউজানকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

তিনি ২৩ আগস্ট রবিবার দুপুরে দক্ষিণ রাউজানের নোয়াপাড়া শেখ কামাল কমপ্লেক্স মাঠে রেলপথ মন্ত্রণালয় সংসদীয় কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ২৫ হাজার মানুষের মেজবান ও আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতি রেলপথ মন্ত্রণালয় সংসদীয় কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন একটি স্বাধিন স্বনির্ভর দেশ প্রতিষ্ঠা করা। আর সেই স্বপ্নকে একটি মহল কোন অবস্থাতেই মেনে নিতে না পেরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যা করে এ দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল। কিন্তু সেই স্বপ্ন বাংলার মাটিটে কোন অবস্থাতেই বাস্তবায়ন হবে না। কারণ জাতির এই মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সেই স্বপ্ন পুরনে কাজ করে যাচ্চে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার। সকলের প্রতি আহব্বান দেশ নেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে কাজ করে দেশকে সমৃদ্ধ করুন।

উপজেলার নোয়াপাড়া, পশ্চিম গুজরা, পূর্ব গুজরা, বাগোয়ান, পাহাড়তলী, কদলপুর, উরকিরচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের কর্মসুচিতে ছিল ২৫ হাজার মানুষের মেজবান, চিকিতসা ক্যাম্প ও আলোচনা সভা।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলহাজ আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা চেয়ারম্যান এহছানুল হায়দর চৌধুরী, রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী দিলোয়ারা ইউসুফ, মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা কামাল উদ্দিন চৌধুরী, নেছার উদ্দিন মনজু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, নোমান আল- মাহমুদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কুল প্রদীপ চাকমা, অনুষ্ঠানের আহবায়ক ও নোয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব দিদারুল আলম, মোহাম্মদ ইছা, আলহাজ্ব এম.এ মান্নান।
আওয়ামীলীগ নেতা মঞ্জুর হোসেনের পরিচালনা উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুসলিম উদ্দিন খান, রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, ফৌজিয়া খানম মিনা, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আবসার মিয়া, চেয়ারম্যান ভুপেশ বড়ুয়া, জাফর আহমদ, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জাহঙ্গীর সিকদার, চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন আরিফ, আবুল বশর বাবুল, সৈয়দ মোজাফ্ফর হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, দোস্ত মোহাম্মদ খাঁন, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক শফিউল আলম, এডভোকেট জিনাত সোহানা, সুনল চক্রবর্তি, দুলাল বড়ুয়া, ইসমাইল শাহ, মুক্তিযোদ্ধা মুক্তিযোদ্ধা আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, বাবুল মিয়া মেম্বার, জমির উদ্দিন পারভেজ, বাবুল মিয়া মেম্বার, রবিনা ইয়াছমিন, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, শান্তিপদ বৈদ্য, প্রদীপ চৌধুরী, আরিফুল আলম, চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন, চেয়ারম্যান মোজাহিদ উদ্দিন লিংকন, চেয়ারম্যান আনোয়ার চৌধুরী, দক্ষিণ রাউজান ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ইমতিয়াজ উদ্দিন, মফজল হোসেন, দিদারুল আলম, মোশাররফ হোসেন ছোটন, সৈয়দ আবু জাফর মো. রাশেদ, জাহাঙ্গীর আলম সুমন, মহিউদ্দিন ইমন, সৈয়দ সাজেদুল ইসলাম সাজু, সোলেমান বাদশা, হাফিজুর রহমান, এডভোকেট মানস চক্রবর্তি মিঠু, শেখ মনিরুল ইসলাম, সেকান্দর হোসেন, নুরুল ইসলাম, কাউসার উদ্দিন লিটন, জেলা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি সাইফুদ্দিন সাইফ, মো. সেলিম উদ্দিন, সৈয়দ মো. মেজবাহ উদ্দিন, সালাহ উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম মুরাদ, আরিফুল ইসলাম, ইমতিয়াজ জসিম।

উল্লেখ্য অনুষ্ঠানকে ঘিরে পুরো এলাকা এক শোকাবহ পরিবেশের পাশাপাশি হাজার হাজার মানুষের আগমনে অনুষ্ঠানস্থল মুখর হয়ে উঠে। এতে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে মিছিলসহকারে আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃকর্মীরা যোগদান করেন। অনুষ্ঠানের শরুতে অনুষ্ঠানস্থলের পার্শ্বে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দিন ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম এমপি শ্রদ্ধা জানান।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত