টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

গেট খুলে দিয়েও কাপ্তাইয়ে পানির স্তর অপরিবর্তিত

রাঙামাটি প্রতিনিধি

kaptচট্টগ্রাম, ২১ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : কাপ্তাই হ্রদের পানি এখন ধারণ ক্ষমতার সর্বোচ্চ পর্যায়ে। গত ২৪ ঘণ্টায় কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্পিলওয়ের ১৬টি গেট সাড়ে পাঁচ ফুট খুলে দেওয়ার পরও কাপ্তাই হ্রদের পানির তেমন একটা পরিবর্তন হয়নি। বর্তমানে রুলকার্ভ অনসুারে কাপ্তাই হ্রদে পানির স্তর ১০৮.২৮ এমএসএল (মিনস সি লেভেল)।

আজ শুক্রবার দুপুরে কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক মো. আবদুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় কাপ্তাই হ্রদে পানি ছিল ১০৮.৩ এমএসএল। এসময় চার ফুট করে পানি ছেড়ে দেওয়া হলেও পরবর্তীতে সাড়ে পাঁচ ফুট পর্যন্ত গেইট খুলে দেওয়া হয়। এতে প্রতি সেকেন্ডে এক লাখ সাত হাজার কিউসেক পানি ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ৫টি ইউনিটে দিন রাত সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদন করার মাধ্যমেও প্রতি সেকেন্ডে আরও ৩৪-৩৫ হাজার কিউসেক পানি ছাড়া হচ্ছে। এতে প্রতি সেকেন্ডে প্রায় এক লাখ ৪০ হাজার কিউসেক পানি ছাড়া হচ্ছে। এরপরও পানির তেমন একটা পরিবর্তন হয়নি।

তিনি জানান, শুক্রবার সকালে পানির স্তর ছিল ১০৮.২৮ এমএসএল। উজান থেকে পানি নামার কারণে পানির স্তরের পরিবর্তন হচ্ছে না। কাপ্তাই হ্রদে পানি কিছুটা না কমা পর্যন্ত গেইট খোলা থাকবে বলে তিনি জানান।

এদিকে, হ্রদে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় হ্রদ সংলগ্ন বিলাইছড়ি, লংগদু, জুরাছড়ি ও রাঙামাটির অনেক এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। অতিরিক্ত পানি ছাড়ায় চন্দ্রঘোনা-লিচুবাগান ফেরি চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। এতে রাঙামাটি-রাজস্থলী-বান্দরবান সড়ক যোগাযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এছাড়া স্পিলওয়ে দিয়ে পানি ছাড়ায় ইতিমধ্যে চট্টগ্রামের নিম্নাঞ্চলের অনেক স্থানে নতুন করে বন্যা সৃষ্টি হয়েছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত