টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাউজানে এবার ৫ কোটি টাকা ব্যায়ে বসানো হচ্ছে ১০ হাজার সড়ক বাতি

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি

Raozan-kaptai-sorokbati-picচট্টগ্রাম, ১৯ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :  রাউজানের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে ব্যাপক বৃক্ষরোপনের পর এবার উপজেলার পৌরসভা ও ১৪ ইউনিয়নের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বসানো হচ্ছে প্রায় ১০ হাজার সড়ক বাতি। এ লক্ষে উপজোর পৌরসভা ও কয়েকটি ইউনিয়ন ইতোমধ্য সড়ক বাতির উদ্বোধন করলেও অন্যরা কা শুরু করেছে। এসব সড়ক বাতির জন্য ব্যায় হবে অন্তত ৫ কোটি টাকা।

সূত্রমতে, রাউজানের উন্নয়ন কর্মকা-ের অংশ হিসেবে উপজেলা পরিষদের এক সমন্বয় সভায় এলাকার সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী জনসাধারনের সুবিধার্তে রাত্রিকালী আলোর জন্য পৌরসভা ও ১৪ ইউনিয়নের প্রতি ওয়ার্ডের সড়ক গুলোতে এসব বাতি লাগানো কাজ দ্রুত শুরু করতে করতে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের নির্দেশ প্রদান করেন। এরই অংশ হিসেবে হলদিয়া ইউনিয়নে ৮ কিলোমিটার জুড়ে ৩ সড়কে সড়ক বাতি উদ্বোধন করলেন সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী। এর পর নোয়াপাড়া ইউনিয়নের কাপ্তাই সড়কে এসব বাতি লাগিয়ে উদ্বোধন করা হয়। তবে অনেক আগেই পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নে লায়ন সাহাবুদ্দিন আরিফ এসব সড়ক বাতি লাগানোর কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। এখন এসব সড়ক বাতি আরো সম্প্রসারন করা হচ্ছে। এই কর্মসূচির আওতায় ১৪ ইউনিয়নের ওয়ার্ডে অন্তত ৫ শত করে লাই বসানো হবে। পৌরসভার ওয়ার্ডে ওয়ার্ডেও বসানো হবে।
জানা যায়, এলাকার সাংসদের ব্যক্তিগত তহবিল ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাদের সহযোগিতায় এসব সড়ক বাতি বসানোর কাজ ইতমধ্য অনেক ইউনিয়ন সম্পন্ন করেছে। তবে অনেকে এসব সড়ক বাতির কাজ করে উদ্বোধন করা হলেও অনেক জায়গায় উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছেন। এতে প্রতিটি বাতির জন্য ৩ হতে ৫ হাজার টাকা। প্রতিটি লাইটে থাকছে লোহা বা ইস্পাতের খুটি। লাইটে বৃষ্টি নিরোধ বাক্সসহও থাকছে। যার কারনে এসব লাইটে রাউজানে ব্যয় হচ্ছে অন্তত ৫ কোটি টাকা। সড়কের লাগানো এসব লাইটের তদারকিতে থাকছে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। এতে এসব নেতৃবৃন্দরা প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল পরিশোধসহ দেখাশোনা করবেন।

বিষয়টি নিয়ে পশ্চিম গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান লায়ন সাহাবুদ্দিন আরিফ বলেন, আমার নেতা এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির নির্দেশে প্রথমেই এসব লাইটিং করি। যার দরুন তিনি এ গুলো দেখে এখন সকল ইউনিয়ন পরিষদের লাগানোর জন্য সমন্বয় সভায় নির্দেশ প্রদান করেন। এতে আমরা আরো সম্প্রসারনের কাজ করছি।

হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, হলদিয়ায় আমরা লাইটিংয়ের উদ্বোধন করেছি। এটি পর্যাক্রমে আরো বৃদ্ধি করা হবে।

পূর্ব গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন বলেন, আমরা ইতমধ্য মেম্বারদের বিদ্যুতের খুটি প্রদান করেছি। খুব শীঘ্রই কাজ সম্পন্ন করা হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত