টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বাজার কমিটির নির্দেশে ফি নেয়া হয় সীতাকুণ্ড কুমিরা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

মো. ইমরান হোসেন
সীতাকুন্ড প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ১৯ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :   ‘বাজার কমিটির নির্দেশে রোগী হতে ফি আদায় করা হয়। একটু ভাল চিকিৎসার আশায় এই ফি নির্ধারন করে তারা।’ তবে এটি সরকারী নিধর্িারিত ফি নয়, এখানে রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়া হয় বলে জানান কর্তব্যরত ডাক্তার ও রোগীরা। এরপরও চিকিৎসার ক্ষেত্রে বৈষম্য থাকায় প্রায় সময় হাসপাতালে লোকজনের সাথে রোগী বাকবিতন্ডে সৃষ্টি হয়। কারণ ফি দেয়া রোগীদের জন্য বিশেষ প্রেসক্রিপশন, ফি ছাড়াদের চলে যেনতেন প্রেসক্রিপশনে চিকিৎসা। কুমিরা ইউনিয়নের বাসিন্দা মিঠু বলেন‘ ডাক্তার হাসপাতালের প্যাডে প্রেসক্রিপশন না করে নিজস্ব প্যাডে চিকিৎসা পত্র দেয়ায় ৩০ টাকা দাবী করে। এই‘ ফি’ না দেয়ায় বাজার কমিটির লোকজনের ধমক দেন তিনি। পরে বিষয়টি বাজার কমিটির লোকজনকে অবহিত হলে তারা কোনো প্রকার ব্যবস্থা গ্রহনে উদ্যোগী হননি। উল্টো ফি দিলে চিকিৎসাটা ভাল দেবে বলে মন্তব্য করেন তারা।

অন্যদিকে ডাক্তার না হয়েও একজন মহিলা ভিজিটর মহিলাদের সব রকমের রোগের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। সে ক্ষেত্রেও ফি ছাড়া উপায় নেই রোগীদের। আর সাথে দিয়ে দেন একগাদা পরিক্ষা-নিরিক্ষা। রোগীদের থেকে ফি আদায়সহ নিয়মবর্হীবুত কর্মকাণ্ডসহ হাসপাতালে নানা অনিয়ম তৈরী করে রেখেছে বাপ্পি নামে টিকেট কাউন্টারের এক কর্মচারী।

অথচ সরকারীভাবে কোনো ফি নির্ধারিত না হলেও রোগীদের ফাঁদে ফেলে কুমিরা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন ধরে ফি’র বিনিময়ে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন কর্মরত চিকিৎসকরা। নয়তো ডাক্তার ও চিকিৎসা কোনোটাই থাকে না। বাজার কমিটির ফি নির্ধারনের কথা বলা হলেও তা অস্বিকার করেন বাজার কমিটির সভাপতি খোকন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আবদুল মোমেন জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ছাড়া অন্য কোনো স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ফি নেয়ার নিয়ম নেয়। কোনো ডাক্তার নিয়মবর্হিবুত ফি আদায় করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত