টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কেক কেটেই জন্মদিন পালন করলেন খালেদা

bnpচট্টগ্রাম, ১৫ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :  প্রতিবারের মতো জন্মদিনের প্রথম প্রহরে না হলেও শেষ পর্যন্ত কেক কেটেই দিনটি উদযাপন করলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। শনিবার রাত সোয়া নয়টার দিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি, যুবদল, ঢাকা মহানগর বিএনপি ও ছাত্রদল আয়োজিত অনুষ্ঠানে নিজের ৭০তম জন্মদিনের কেক কাটেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

শনিবার সন্ধ্যার পর থেকেই খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে চলতে থাকে জন্মদিন উদযাপনের প্রস্তুতি চলতে থাকে। নেতাকর্মীরা ফুল হাতে আসতে থাকেন দলীয় প্রধানকে শুভেচ্ছা জানাতে। এ উপলক্ষে গুলশান কার্যালয় সাজানোও হয়।

জন্মদিনের কেক কাটার আগে তার মঙ্গল কামনায় দোয়া পড়া হয়। দোয়া পরিচালনা করেন ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ নেসারুল হক।

পরে খালেদা জিয়া দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে চারটি কেক কাটেন। চারটি কেকের দুটি আনা হয় বিএনপির পক্ষ থেকে, একটি ছাত্রদলের ও একটি যুবদলের পক্ষ থেকে। যুবদলের কেকটি ৭০ কেজির, বাকিগুলো ৭০ পাউন্ডের।

কেক কাটার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, রুহুল আলম চৌধুরী, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, সেলিমা রহমান, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, যুবদলের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৬ সালের ১৫ আগস্ট তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রীর মিন্টু রোডের সরকারি বাসভবনে খালেদা জিয়া প্রথমবারের মতো নেতা-কর্মীদের নিয়ে কেক কেটে জন্মদিন উদযাপন শুরু করেন। ওই সময়ের একজন যুবদল নেতা ও কয়েকজন বুদ্ধিজীবীর পরামর্শে এ আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়।

এদিকে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের দিনে খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালন নিয়ে বিএনপির ভেতরে ভেতরে নানা আলোচনা-সমালোচনা আছে। আর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এই দিনে জন্মদিন পালন করা নিয়ে আছে কঠোর সমালোচনা। অভিযোগ করা হয়, শোকের দিণে খালেদা জিয়া ভুল জন্মদিন পালন করছেন। এর মাধ্যমে শোক দিবসের প্রতি আঘাত দেয়া হচ্ছে। তাই প্রতি বছরের মতো এবারও ১৫ আগস্ট জন্মদিন উদপাযন না করতে বিএনপি প্রধানের প্রতি আহ্বান জানায় আওয়ামী লীগ। অন্যান্যবারের রীতি ভেঙে খালেদা জিয়া এবার ১৫ আগস্টের প্রথম প্রহরে জন্মদিনের কোনো আনুষ্ঠানিকতা পালন করেননি। ১৫ আগস্ট দিনভরও ছিল না কোনো আনুষ্ঠানিকতা।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত