টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে সক্রিয় জাল নোটের ব্যবসায়ীরা

চট্টগ্রাম, ১২ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : জালনোটচট্টগ্রামে সক্রিয় হয়ে উঠেছে জাল নোট ব্যবসায়ীরা। প্রশাসনের কড়া নজরদারিতে গত ঈদুল ফিতরে চট্টগ্রামে জাল টাকা ব্যবসায়ীরা সুবিধা করতে না পারলেও কোরবানির ঈদ সামনে রেখে তারা ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে বলে পুলিশ তথ্য পেয়েছে।

সর্বশেষ গত মঙ্গলবার নগরীর চান্দগাঁও থানার বহদ্দারহাট এলাকার জামান হোটেল থেকে ৬২ হাজার টাকার জাল নোটসহ সংঘবদ্ধ চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে র্যাব।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মো. মিজানুর রহমান (২৪) ও মো. কাদির (২৯)। এদের মধ্যে মিজান আনোয়ারা থানার উত্তর পাড়া ওষাখাইনের মৃত গোলাম হোসেনের ছেলে। সে নগরীতে বাকলিয়া থানার বলিরহাটে করিমিয়া মাদ্রাসায় থাকতো। কাদের রাঙ্গুনিয়া থানার পূর্ব খিলমঙ্গল আবু রায়হান মাষ্টারের বাড়ীর মৃত আ. হামিদের ছেলে। সে নগরীতে চান্দগাঁও থানার করম পাড়া বন্দরনগর আনু সওদাগরের বাড়ীতে থাকতো।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক এএসপি আমিরুল্লা জানান, বহদ্দারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬২ হাজার টাকার জাল নোটসহ দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উদ্ধারকৃত জাল নোটের মধ্যে ১ হাজার নোট ৫২টি ও ৫০০ টাকার ২০টি নোট রয়েছে বলে জানান তিনি।

র্যাব জানায়, একটি সংঘবদ্ধ চক্র ঢাকা থেকে আনা কোটি কোটি টাকার জাল নোট চট্টগ্রামের বাজারে ছড়িয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে। এই চক্রের পুরো টিমকে গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু করেছে র্যাব।

চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এসএম তানভীর আরাফাত জানান, সাম্প্রতিক কয়েকটি অভিযানে বিপুল পরিমাণ জাল নোটসহ একাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, জাল নোট ব্যবসায়ী চক্রের একাধিক সিন্ডিকেট চট্টগ্রাম মহানগরী ও জেলার কয়েকটি অঞ্চলে সক্রিয় রয়েছে। পুলিশের অনুসন্ধানে চট্টগ্রামে প্রায় ৩৫টি সক্রিয় জাল নোট পাচারকারী চক্রের তথ্য মিলেছে।

তিনি আরো বলেন, জাল নোট ব্যবসায়ী চক্রের ব্যাপারে পুলিশের বিশেষ নজরদারি থাকায় রোজার ঈদে চক্রটি সুবিধা করতে পারেনি। তবে কোরবানির ঈদ সামনে রেখে তারা ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত