টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সীতাকুণ্ডে অটোরিকশা চালকদের এমপির বাসা ঘেরাও

tচট্টগ্রাম, ০৮ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) :  চট্টগ্রাম নগরীর আকবর শাহ থানার সিটি গেইট এলাকায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ দিদারুল আলমের বাসা ঘেরাও করেছে সিএনজি অটোরিকশার চালকরা।

এসময় তারা মহাসড়কে চার ঘণ্টা সিএনজি অটোরিকশা চালানোর অনুমতি দেয়ার দাবি জানান।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত আধাঘণ্টা এ কর্মসূচী পালন করেছেন চালকরা।

এসময় অটোরিকশা চালকদের দাবি আদায়ের জন্য সংসদের জোরালো ভূমিকা দাবি করেন।

দুর্ঘটনা এড়াতে সরকারের নির্দেশে গত ১ অগাস্ট থেকে মহাসড়কে সবধরনের ধীরগতির ও তিন চাকার যান চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

এর প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক-মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন চালক-মালিকরা।

কোথাও কোথাও তারা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষেও জড়িয়েছেন।

এর প্রেক্ষিতে গ্যাস নিতে মহাসড়কে দুই ঘণ্টা অটোরিকশা চালানোর অনুমতি দিয়েছে সরকার।

সীতাকুণ্ড থেকে নির্বাচিত সংসদ দিদারুল আলম বলেন, চালকরা বলেছেন, দুই ঘণ্টা সময়ে তাদের হবে না। তারা আরো দুই ঘণ্টা বাড়তি চান। তারা চার ঘণ্টা মহাসড়কে থাকতে চান।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি বলেছি, আমাকে ঘেরাও করে তো কোন লাভ হবে না। অনুমতি দেয়ার মালিক তো সড়ক পরিবহন মন্ত্রী। আমি উনার সঙ্গে কথা বলে দেখবো।’

আকবর শাহ থানার ওসি সদীপ কুমার দাশ বলেন, শতাধিক অটোরিকশা চালক প্রথমে সিটি গেইট এলাকায় জড়ো হন।

পরে সেখান থেকে মিছিল নিয়ে তারা যান সংসদের বাসার সামনে। সেখানে তারা ঘেরাও করার শ্লোগান দেন এবং বাসার সামনে অবস্থান নেন।

‘পরে এমপি মহোদয় বাসা থেকে বেরিয়ে আসেন এবং চালকদের দাবির বিষয়ে মন্ত্রণালয়ে কথা বলবেন বলে আশ্বস্ত করলে তারা ফিরে যান। ঘটনাস্থলে পুলিশ ছিল। অপ্রীতিকর কোন ঘটনা ঘটেনি।’

মহাসড়কে অটোরিকশা চলাচল বন্ধ নিয়ে ব্যাপক বাদ-প্রতিবাদের মুখে গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছিলেন, ‘এ বিষয়ে কোনো আপস করা হবে না।

তবে ভবিষ্যতে মহাড়কে এসব যান চলাচলের জন্য আলাদা লেইন করা হবে।’

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত