টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

৬০ রানে অলআউট অস্ট্রেলিয়া!

spচট্টগ্রাম, ০ ৬ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : অ্যাশেজ মানেই টেস্ট ক্রিকেটের পরিপূর্ণ প্রদর্শনী। রানের পাহাড়, আগুন ঝরা বোলিং কোনো কিছুরই কমতি নেই ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার ধ্রুপদী এই লড়াইয়ে।

ট্রেন্ট ব্রিজে বৃহস্পতিবার চতুর্থ টেস্টের প্রথম দিনের সকালে বল হাতে রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছেন ইংল্যান্ডের বোলাররা। বিশেষ করে স্টুয়ার্ট ব্রড। ডান হাতি এই পেসারের বোলিং ত্রাস ছড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনে। ম্যাচের প্রথম ঘন্টায় ব্রডের বোলিংয়ের সামনে খড়-কুটোর মতো উড়ে গেছে সফরকারীরা।

প্রায় দেড় ঘণ্টার মতো স্থায়ী ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া খেলেছে ১৮.৩ ওভার। প্রথম ইনিংসে ৬০ রানে অলআউট হয়েছে মাইকেল ক্লার্কের দল। টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার এটি পঞ্চম সর্বনিম্ন স্কোর। এর আগেও একবার তারা ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল। সেটি ১৮৮৮ সালে লর্ডসে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই। অ্যাশেজের ইতিহাসেও এটি নবম সর্বনিম্ন স্কোর।১৯৯৬ সালের পর প্রথমবার টেস্টে লাঞ্চের আগে অলআউট হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। কম ওভারে শেষ হওয়া ইনিংসগুলোর দিক থেকে এটি সপ্তম।
অসিদের এই কঙ্কালসার চেহারা বানিয়েছেন ব্রড। তিনি করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ৯.৩ ওভার বল করে ৫টি মেডেনসহ ১ রানে ৮ উইকেট নিয়েছেন ব্রড। এর আগে ৪৪ রানে ৭ উইকেট ছিল তার সেরা বোলিং।টেস্টে ৮ উইকেট পাওয়া বোলারদের মধ্যে ব্রডের এই বোলিং তৃতীয় সেরা।

ট্রেন্ট ব্রিজে রোদ্রকরোজ্জল সকালে উইকেটকিপার স্লিপ, গালিসহ একটা বেষ্টনী তৈরি করেছিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক।গোটা অস্ট্রেলিয়া দলটাই ধরা পড়ল সেই বেষ্টনীতে।ব্রড বল করে গেছেন।বল ব্যাটসম্যানের ব্যাটে চুমো দিয়ে বেষ্টনীতে থাকা ফিল্ডারদের হাতে জমা পড়েছে। এটাই নিয়মিত দৃশ্য ছিল ট্রেন্ট ব্রিজের গ্যালারিতে থাকা দর্শকদের জন্য।

সিরিজের চতুর্থ টেস্টে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক কুক। নতুন বলে ইনিংসের প্রথম ওভারেই অসি ব্যাটসম্যানদের মাঝে কাঁপন ধরান ব্রড। ইনিংসের তৃতীয় বলে রজার্স (০) স্লিপে ক্যাচ দেন। টেস্ট ক্যারিয়ারে রজার্সের এটি প্রথমবার শূন্য রানে আউট হওয়া।ষষ্ঠ বলে স্টিভেন স্মিথ ফিরেন রুটের হাতে ক্যাচ দিয়ে। দ্বিতীয় ওভারে বল করতে এসে মার্ক্ উডও যোগ দেন ব্রডের মতো শিকার কাব্যে। ওয়ার্নার (০) উইকেটের পেছনে বাটলারের হাতে ক্যাচ দেন।

এরপর নিজের পরপর তিন ওভারে মার্শ, ভজেস, মাইকেল ক্লার্ককে সাজঘরে পাঠান ব্রড। ডানহাতি এই পেসারের এটি ১৪তম পাঁচ উইকেট। ইনিংসের দশম ওভারে পিটার নেভিলকে বোল্ড করে একটি উইকেট নিয়েছেন স্টিফেন ফিন।১৩তম ওভারে এক বলের ব্যবধানে স্টার্ক, জনসনকেও শিকার তালিকায় যুক্ত করেছেন ব্রড। দুজনেই রুটের হাতে ক্যাচ দিয়েছেন। স্টার্ক (১) চতুর্থ বলে আর জনসন (১৩) ষষ্ঠ বলে।
৪৭ রানে ৯ উইকেট হারানো অস্ট্রেলিয়া ৫০ পার হয় লিয়ন ও হ্যাজেলউডের জুটিতে।১৯তম ওভারে লিয়নকে স্টোকসের ক্যাচে পরিণত করে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের লেজটা মুড়ে দেন ব্রডই। উড, ফিন ১টি করে উইকেট পান।

মতামত