টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে পাহাড় কাটায় নিষেধাজ্ঞা

paharচট্টগ্রাম, ০৩ আগস্ট (সিটিজি টাইমস) : নগরীর আকবরশাহ থানার উত্তর পাহাড়তলী লেকসিটির পাশে পাহাড় কাটা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার দুপুরে এক রিট মামলার শুনানি শেষে সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পাহাড় কাটা কেন বে আইনি ঘোষণা করা হবে না এবং কেন পাহাড়টিকে সংরক্ষণের জন্য নির্দেশ দেওয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছে আদালত।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসক, পুলিশ কমিশনার, পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে পরিচালককে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

নগরীর আকবরশাহ থানার উত্তর পাহাড়তলী এলাকায় ১০ দশমিক ৫১ একর একটি পাহাড় কেটে সমান করে ফেলছে সাবেক কাউন্সিলর আবদুস ছাত্তার সেলিমসহ ছয়জন।

এ সংক্রান্ত সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে এপ্রিলে সরেজমিন পরিদর্শন করে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির(বেলা) একটি দল। পরে সাবেক কাউন্সিলরসহ পাহাড় কাটার সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে নোটিশ দেওয়া হয়। নোটিশের কোন জবাব না দেওয়ায় বেলার পক্ষ থেকে সাবেক কাউন্সিলরসহ ছয়জনকে বিবাদি করে রিট মামলা দায়ের করা হয়। রিট নম্বর ৭৮৮৮৩/২০১৫।

বিবাদিরা হলেন- সাবেক কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার সেলিম, পাহাড়টি কাটার সঙ্গে জড়িত আবদুস সোবহান, আবদুল মান্নান, গুনু মিয়া ও আমিন। অন্য জনের নাম পাওয়া যায়নি।

বেলার আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিনহাজুল হক চৌধুরী বলেন,‘উত্তর পাহাড়তলী এলাকায় পাহাড় কাটার উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে পাহাড়টি সংরক্ষণের কেন উদ্যোগ নেওয়া হবে না- তা তদারককারি সংস্থাগুলোর কাছে জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে।’

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত