টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাই: নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপি নেতাদের আদালতে আত্মসমর্পণ

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি

bnp-flagচট্টগ্রাম, ০৩ আগস্ট (সিটিজি টাইমস):: মামলায় জর্জরিত মিরসরাই উপজেলার বিএনপির নেতা-কর্মীরা। গত ৩ বছরে শত শত নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে প্রায় শতাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে উপজেলার দুটি থানায়। মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে অনেকে কারাগারে দিন যাপন করছেন। গ্রেপ্তার আতংকে বাড়িছাড়া হয়েছেন শত শত নেতা-কর্মী।

এদিকে নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী বছরের শুরুতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পৌর নির্বাচন। সেই উদ্দেশ্যে ইতিমধ্যে সারা দেশে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজও চলছে জোরেশোরে। নিবার্চন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী সাজা প্রাপ্ত কোন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে না। তাই মিরসরাইয়ের দুটি পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিতে ইতিমধ্যে পলাতক বিএনপির নেতারা আত্মসমপর্ণের পথ বেছে নিয়েছেন। গত ২৬ জুলাই বারইয়ারহাট পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মিয়াজি, ২৮ জুলাই বারইয়ারহাট পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর বিএনপি নেতা জসিম উদ্দিন সহ একাধিক নেতা আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দিদারুল আলম মিয়াজি আগামী বারইয়ারহাট পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হবেন। এছাড়া সাবেক কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন বারইয়ারহাট পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড হতে পুনরায় প্রার্থী হবেন বলে জানা গেছে।

আরো জানা গেছে, উপজেলার বিএনপি-জামায়াতের নেতাদের মধ্যে যারা বিভিন্ন রাজনৈতিক মামলায় আসামী রয়েছে তাদের মধ্যে অনেকে আদালতে আত্মসমর্পণ করবেন। আত্মসমর্পনের মূল উদ্দেশ্য হলো আগামী পৌর ও ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা। যাতে করে গ্রেপ্তার আতংক এড়িয়ে নির্বাচনি প্রচারণা চালানো যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলা বিএনপির এক সিনিয়র নেতা জানান, যদি নির্বাচনী পরিবেশ অনুকূলে থাকে তাহলে দলীয় সিদ্ধান্তে বিএনপি পৌর ও ইউপি নির্বাচনে অংশ নিতে পারে। আর দলকে গোছানোর জন্য নির্বাচনে প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলে ওই বিএনপি নেতা মনে করেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত