টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আশরাফুলের সঙ্গে খেলে ফাঁসছেন ইলিয়াস-নাদিফরা!

aচট্টগ্রাম, ০৩ আগস্ট (সিটিজি টাইমস):: আইসিসির নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে অনুমোদনহীন টুর্নামেন্টে ক্রিকেট খেলে যাচ্ছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। যুক্তরাষ্ট্রে তার চুটিয়ে ক্রিকেট খেলার বিষয়টি সবারই জানা। কিন্তু সম্প্রতি তার হাত ধরে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছেন বাংলাদেশের আরো কয়েকজন ক্রিকেটার। তারা হলেন ইলিয়াস সানি, তাপস বৈশ্য, নাদিফ চৌধুরী ও শাকের আহমেদ।

ক্রিকেটের প্রচার ও প্রসার বাড়াতে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে ‘ডাইভারসিটি কাপ নামে’একটি টুর্নামেন্ট চলছে। সেখানে স্থানীয় প্রবাসী বাঙালি ক্রিকেটারসহ আশরাফুলরা মিলে অংশ নিচ্ছেন ‘বাংলাদেশ টাইগার্স’ নামের একটি দলের হয়ে। আন-অফিসিয়াল ক্রিকেট বলে আশরাফুলের খেলা নিয়ে হয়তো বিসিবিরও মাথাব্যথা নেই। তবে ইলিয়াস সানি, নাদিফ চৌধুরী, শাকেরদের যুক্তরাষ্ট্রে খেলা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

প্রথমত, তারা বিসিবির প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার। চুক্তি অনুযায়ী দেশের বাইরে খেলতে গেলে বিসিবির ছাড়পত্র লাগে। তা তারা কেউই নেননি। দ্বিতীয়ত এসব ক্রিকেটাররা ম্যাচ খেলছেন একজন নিষিদ্ধ ক্রিকেটার আশরাফুলের সঙ্গে। সেটি নিয়ম অনুযায়ী বৈধ নয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রোববার বিসিবির সিইও নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন সাংবাদিকদের বলেন, “আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আইনি কাঠামোর মধ্যেই। যে টুর্নামেন্ট বা ম্যাচের কথা আপনি বলছেন, তা আমাদের এখতিয়ারের বাইরে। দ্বিতীয়ত, আমাদের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের চুক্তির মধ্যে থাকা যেসব ক্রিকেটার অনুমতি বা ছাড়পত্র ছাড়া এসব অনুমোদনহীন ক্রিকেট ইভেন্টে অংশ নিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবং সেটা বোর্ডের নিয়মনীতির মাধ্যমেই।”

ডাইভারসিটি কাপের স্ট্যাটাস সম্পর্কে বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেন, “এটা বলা ঠিক হবে না যে, এটা অনুমোদন পাওয়া ক্রিকেট নয়। আমরা যেটা জেনেছি, এটা অফিসিয়াল ক্রিকেট না। এটা দেখতে হবে এটা পাড়ার টুর্নামেন্ট নাকি।”

ডাইভারসিটি কাপে অংশ নেয়া ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া সম্পর্কে নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, “আমাদের বোর্ডের গাইডলাইন দেখতে হবে। তারপর এটার বিষয়ে মন্তব্য করতে পারবে। এটা যেহেতু নিয়মিত হচ্ছে, আমরা বিষয়টা দেখবো। এসব প্রতিরোধে কী করা যায় তা দেখার পরই আমরা কথা বলতে পারবো।”

এ ছাড়া বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অনেক ক্রিকেটার বিসিবির অনুমোদনহীন টুর্নামেন্টে খেলছেন। সে তালিকায় জাতীয় দলের ক্রিকেটারও আছেন। জাতীয় দলের বাইরে থাকা অনেক ক্রিকেটারও রয়েছেন। এসব টুর্নামেন্টে ক্রিকেটারদের অবিরাম অংশগ্রহণ বন্ধ করার বিষয়েও চিন্তা করছে বিসিবি।

২০১২ সালেও ডাইভারসিটি কাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তখন আটটি দল অংশ নিয়েছিল। এবার এই টুর্নামেন্টে অংশ নিবে নয়টি দল। বাংলাদেশ টাইগার্স ছাড়াও আছে শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, কানাডা, এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশ। তিনটি গ্রুপে অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টটি। বাংলাদেশের গ্রুপে আরো আছে শ্রীলঙ্কা ও কানাডা। ১ আগস্ট দুই দলের সঙ্গেই একবার করে মুখোমুখি হবে আশরাফুলরা। ২ আগস্ট অনু্ষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টের ফাইনাল ও সেমিফাইনাল।

বাংলাদেশের মতো শ্রীলঙ্কা দলেও আছে একঝাঁক তারকার ভিড়। আছেন সাবেক পেসার দিলহারা ফার্নান্দো, অলরাউন্ডার পারভেজ মাহরুফ, আসেলা জয়াসিংহে, রয় সিলভা, সুজিয়া ডি সিলভা, কোসালা কুলাসেকারা। এই গ্রুপের সবগুলো ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ব্লুমারে। বাকি দুই গ্রুপের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে ট্রম্বলি ও মিরেজ। সবগুলো ম্যাচ হবে ২০ ওভারের। মূল স্কোয়াডে থাকবেন ১৫ জন খেলোয়াড়। এর মধ্যে সাতজন টসের আগেই নির্ধারিত হয়ে যাবেন। বাকি খেলোয়াড়দের থেকে টসের পর ইচ্ছামতো বাকি চার খেলোয়াড় বাছাই করা যাবে

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত