টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

খাতুনগঞ্জের ৭ হাজার দোকানে পানির নিচে

paniচট্টগ্রাম, ০২ আগস্ট (সিটিজি টাইমস)::  বাংলাদেশে গত কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে ছোটবড় শহরগুলোতে শুধু যে জলাবদ্ধতারই সৃষ্টি হয়েছে তাই নয়, এর বিরূপ প্রভাব পড়েছে ব্যবসাবাণিজ্যের ওপরও।

সারা দেশের পাইকারী ব্যবসার অন্যতম প্রধান প্রাণকেন্দ্র চট্টগ্রাম শহরের খাতুনগঞ্জ এলাকায় প্রায় সাত হাজার দোকান এখন পানির নিচে। এর ফলে যেমন মালামাল নষ্ট হয়েছে, তেমনি বিপর্যন্ত হয়ে পড়েছে ব্যবসায়িক কাজকর্ম।

খাতুনগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ীদের সংগঠন ট্রেড এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সগীর আহমদ জানিয়েছেন, চাকতাই ও খাতুনগঞ্জ এলাকায় প্রায় সাত হাজার দোকানের প্রত্যেকটিতে পানি উঠেছে।

এসব দোকান ও গুদামে মালামাল, ভোগ্যপণ্য এবং নিত্যব্যবহার্য সামগ্রীর যে মজুত ছিল তা এখন পানির নিচে। মজুত থাকা পণ্যের নিচের দিকের অন্তত তিনটি স্তর নষ্ট হয়ে গেছে বলছিলেন মি. আহমদ।

ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে আমদানি করা এসব পণ্য নষ্ট হয়ে গেলে ব্যবসায়ীরা গুরুতর আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন – এ কথা উল্লেখ করে মি. আহমদ বলেন, বহুদিন ধরেই তারা কর্ণফুলী নদীর ড্রেজিং, ভেড়িবাঁধ সম্প্রসারণ এবং চাকতাই খালেন মোহনায় স্লুইস গেট নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছেন।

কিন্তু কোন সরকারই এ দাবি পূরণের কোন পদক্ষেপ নেয় নি, বলেন তিনি।

পাহাড় কাটা এবং মানুষের বর্জ্য ফেলার জন্য চাকতাই খালের গভীরতা কমে গেছে – যা এই এলাকায় জলাবদ্ধতার একটি বড় কারণ বলে সৈয়দ সগীর আহমদ উল্লেখ করেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত