টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ, ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

abhaoaচট্টগ্রাম, ২৬ জুলাই (সিটিজি টাইমস): উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি দ্রুত ঘনীভূত হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হওয়ায় দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

লঘুচাপটি মৌসুমী নিম্নচাপে পরিণত হওয়ায় নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছে সাগর মাঝারি ধরনের উত্তাল অবস্থা বিরাজ করছে।

ফলে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নিম্নচাপটি রবিবার দুপুর ১২টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১১৫ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪০ কিলোমিটার পশ্চিম-উত্তরপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৫৫ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থান করছিল।

সন্ধ্যা ৬টায় নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১৫০ কিলোমিটার পশ্চিম-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৭০ কিলোমিটার পশ্চিম-উত্তরপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ২০ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থান করছিল।

নিম্নচাপটি আরো ঘনীভূত হতে পারে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানান হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচলের অনুরোধ জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

এদিকে মৌসুমী নিম্নচাপের প্রভাবে রবিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

এছাড়া, অতি ভারি বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, রবিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, সিলেট ছাড়া দেশের প্রায় সব জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ২৮২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রাম ও টেকনাফে।

মতামত