টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়

spচট্টগ্রাম, ১৫ জুলাই (সিটিজি টাইমস)::   বুধবার সিরিজ-নির্ধারণী ম্যাচে প্রোটিয়াদের ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজ ২-১ এ জয় করে নেয় টাইগার শিবির।

বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে জয়ের জন্য বাংলাদেশকে ১৭০ রানের লক্ষ্য ছূঁড়ে দিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। সেখানে ওপেনিং জুটিতেই আসে ১৫৪ রান। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি করে সেঞ্চুরির পথে হাঁটা সৌম্য সরকার আউট হয়েছেন ৯০ রান করে। মাত্র ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেছেন তিনি। হাফসেঞ্চুরি করেছেন তামিম ইকবালও। সৌম্য ফিরে গেলে তামিমের সঙ্গে যোগ দিয়ে জয়ের বাকি আনুষ্ঠানিকতা সেরেছেন লিটন দাস।

এর আগে বৃষ্টির কারণে খেলার ওভার ৪০ করা হয়েছে। সিরিজ নির্ধারণী এই ম্যাচে বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকা ৪০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৬৮ রান করেছে। তবে বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশের জন্য ৪০ ওভারে ১৭০ রানের জয়ের লক্ষ্য নির্ধারিত হয়েছে।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বুধবার বেলা ৩টায় খেলা শুরু হয়েছে। দেড় ঘণ্টার মতো চলার পর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় ৩ ঘণ্টা খেলা বন্ধ থাকে। এর আগেই ২৩ ওভারে ৭৮ রানে দক্ষিণ আফ্রিকার ৪ উইকেট তুলে নিয়েছে টাইগাররা।

দিবারাত্রির এই ম্যাচে টস জিতে শুরুতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক হাশিম আমলা। কিন্তু তার এই সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা প্রমাণ করতে পারেননি দলের ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ৫০ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের ৪ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রোটিয়াস ব্যাটিং লাইনে প্রথম আঘাত হেনেছেন মুস্তাফিজু রহমান। দলীয় ৮ রানে কুইন্টন ডি কককে ফিরিয়ে দিয়ে দারুণ সূচনা করেছেন নবীন এই বাংলাদেশী পেসার। এরপর ব্যক্তিগত দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই ফাফ ডু প্লেসিসকে নিজের শিকারে পরিণত করেছেন সাকিব। ডি কক ও প্লেসিস কেউই দুই অঙ্ক ছূঁতে পারেননি।

সেই ধারাবাহিকতায় হাশিম আমলাকে (১৫) সাজঘরে ফিরিয়ে আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে দুশ’তম উইকেট নিয়েছেন সাকিব। অবশ্য সাকিবের আগের ওভারেই আমলার তোলা ক্যাচ মিস করেছিলেন সাব্বির। তবে এবার আর ভুল হয়নি। উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা মুশফিক ক্যাচ তালুবন্দি করেছেন।

দলীয় ৫০ রানে প্রোটিয়াস ব্যাটিং লাইনে বৃষ্টির আগে শেষ আঘাত হেনেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। রিয়াদের বলে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েছেন রিলি রুশো (১৭)। এরপরই বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

বন্ধ খেলা শুরুর পর প্রথম সাফল্য পেয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। বাংলাদেশ অধিনায়কের বলে সাব্বিরের হাতে ক্যাচ দিয়ে মাঠ ছেড়েছেন ডেভিড মিলার। মিলার ৪৪ রান করেছেন। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে ২০০ উইকেট লাভ করেছে নড়াইল এক্সপ্রেসখ্যাত এই পেসার। একই ম্যাচে সাকিবও আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে উইকেটের ডাবল সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন।

এরপর প্রোটিয়াসদের ব্যাটিং লাইনে ব্যক্তিগত তৃতীয় আঘাত হেনেছেন সাকিব আল হাসান। ফারহান বেহারদিয়েনকে (১২) সাজঘরে ফিরিয়েছেন তিনি। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে নিয়েছিলেন আরো দুই উইকেটে।

এরপর আবারও মুস্তাফিজ জাদু। বাংলাদেশ সফরে দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সফল বোলার রাবাদা এবার পরাস্ত হয়েছেন মুস্তাফিজের কাটারে। দলীয় ১৫৫ রানে সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠ ছেড়েছেন তিনি। শেষ ওভারে রুবেল নিয়েছেন দুটি উইকেট। যার মধ্যে ইনিংস সর্বোচ্চ রান তোলা জেপি ডুমিনিও (৫১) রয়েছেন

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ এটি। প্রথম দুই ম্যাচ শেষে সিরিজ ১-১ ব্যবধানে সমতায় আছে। তাই এই ম্যাচ যারা জিতবে তারাই সিরিজ জিতে নেবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

দক্ষিণ আফ্রিকা : ১৬৮/৯ (৪০ ওভার)-ডুমিনি ৫১, মিলার ৪৪, রুশো ১৭; সাকিব ৩/৩৩, মুস্তাফিজ ২/২৪, রুবেল ২/২৯, রিয়াদ ১/২০, মাশরাফি ১/২৯।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত