টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

খালেদার দ্রুত বিচারে ঈদের পর বিশেষ ট্রাইব্যুনাল: ইনু

চট্টগ্রাম, ১১ জুলাই (সিটিজি টাইমস):  বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দ্রুত বিচার সম্পন্ন করতে ঈদের পর বিশেষ ট্রাইব্যুনাল হবে বলে জানালেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় মির্জানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, পেট্রোল বোমা হামলার ‘হুকুমদাতা’ হিসেবে খালেদা জিয়া ও তার সহযোগীদের বিচারে ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হবে বলে গত ৮ জুলাই জাতীয় সংসদকে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘পেট্রোল বোমা হামলার নির্দেশকারী খালেদা জিয়া ও তার সহযোগীসহ সকল অপরাধীদের নামে দায়েরকৃত মামলাগুলো বিচার করার জন্য সন্ত্রাস বিরোধী আইন-২০০৯ এর ২৭ ধারা অনুযায়ী সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।’

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঈদের পরই এই বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হচ্ছে। এই ট্রাইব্যুনালে প্রত্যেকটা মানুষ পোড়ানোর ঘটনার মামলা পাঠানো হবে।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কারভাবে বলেছেন- আইনের ঊর্ধ্বে কেউ নয়, বেগম জিয়াও নন। উনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন, তবে সম্প্রতি দেড় শতাধিক মানুষকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার কর্মকাণ্ডের যে নেতৃত্ব তিনি দিয়েছেন, সেটা ১৯৭১ সালের গণহত্যার মতো একটি ঘটনা।’

‘৭১-এর গণহত্যায় যেমন রেহাই দেয়া হচ্ছে না, তেমনি মানুষ পোড়ানোর দায়ে খালেদা জিয়াও অভিযুক্ত। তার নামে মামলা হয়েছে, তদন্ত শেষ হয়েছে। দুই-একটা মামলায় অভিযোগপত্র হয়েছে’ যোগ করেন ইনু।

তিনি বলেন, ‘ট্রাইব্যুনালে খালেদা জিয়া যদি নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারেন তাহলে রাজনীতি করবেন, না হলে রাজনীতি থেকে ইস্তফা দিয়ে কারাগারে চলে যাবেন। এর বাইরে তার অন্য কোনো পরিণতি নেই।’

এ সময় জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম স্বপন, মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী জালাল উদ্দীন, মিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাহাদুর শেখ এবং জাসদের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মতামত