টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কক্সবাজার হবে উন্নয়নের প্রাণকেন্দ্র- প্রধানমন্ত্রী

ইমাম খাইর, কক্সবাজার ব্যুরো:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘কক্সবাজার বিমান বন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার মধ্যে কক্সবাজারের উন্নতির ধারায় আরো একধাপ এগিয়ে দেয়া হলো। মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র ও সাবরাং এক্সক্লুসিভ ট্যুরিষ্টজোনসহ কক্সবাজারের পর্যটন শিল্প সম্ভাবনাকে আরো সম্প্রসারিত করবে এই বিমানবন্দর। এ ছাড়া কক্সবাজারের মাধ্যমে পশ্চিমা মহাদেশে ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সাথে বাংলাদেশের উন্নয়ন হবে।
কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।
২ জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে’র মাধ্যমে তিনি সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন করেন। এ সময় কক্সবাজার অবস্থান করছিলেন বেসামরিক বিমান ও পরিবহন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কক্সবাজার অনেক দিন অবহেলিত ছিল। আর তা হতে দেবো না। ১৯৯৬ সাল থেকে আওয়ামী লীগ সরকার কক্সবাজারের উন্নয়নে যে রূপরেখা তৈরি করেছে তার পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন হবে। তার অধিকাংশই ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। ঘুমধুম-দোহাজারী রেল লাইন প্রকল্পও অচিরেই বাস্তবায়ন হবে। এর জন্য আনুষঙ্গিক কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। এখন শুধু শুরু করা।
ঘুমধুম-দোহাজারী রেল লাইন নিয়ে তিনি বলেন, ‘ঘুমধুম-দোহাজারী রেললাইন স্থাপন হলে বাংলাদেশের সাথে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ গুলোর সাথে বাংলাদেশের যোগযোগের অপার সম্ভবনা সৃষ্টি হবে। আর কক্সবাজার হবে এর সংযোগস্থল। একই সাথে কক্সবাজার দিয়ে মায়ানমার, ভারত ও চীনের সাথে সড়ক যোগাযোগও স্থাপন করার কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।’
বক্তব্যের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি কক্সবাজারে বয়ে যাওয়া ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের প্রতি সমবেদনা জানান এবং নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করেন।
এসময় তিনি বলেন, ‘কক্সবাজারের বন্যা নিয়ে আমরা আলাদা গুরুত্ব সহকারে কাজ করছি। বন্যা কবলিত এলাকাকে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণের রাখা হয়েছে। সরবাহ করা হচ্ছে ত্রাণসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী।’ বর্ষা শেষ হলেই রাস্তাঘাটসহ ক্ষতিগ্রস্ত সব অবকাঠামো মেরামত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি।’
প্রধানমন্ত্রী বক্তব্যের শেষে বেসামরিক বিমান ও পরিবহন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ফলক উন্মোচন করেন।
বিমানবন্দর চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, আব্দুর রহমান বদি, জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসাইন, পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ প্রমুখ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত