টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বান্দরবানে পাহাড় ধসে ভাই-বোনের মৃত্যু

bচট্টগ্রাম, ২৬ জুন (সিটিজি টাইমস):: বান্দরবান সদর উপজেলার বনরুপাড়ায় পাহাড় ধসে দুই শিশু ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় শিশুদের বাবা-মাসহ আরো তিনজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার ভোররাতে পাহাড় ধসের এ ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলো- মোহাম্মদ আলীফ (১২) ও মিম সুলতানা (৮)। এ ঘটনায় তাদের বাবা আব্দুর রাজ্জাক, মা আয়েশা বেগম ও পার্শ্ববর্তী শাহ আলম আহত হন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত সোমবার থেকে পাঁচ দিনের টানা বর্ষণে জেলা সদরের বনরুপাড়ায় পাহাড় ধসে পড়।

খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ও স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটির নিচ থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। দায়িত্বরত চিকিৎসক দুই শিশুকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

দমকল বাহিনীর ইউনিট অফিসার রণবীর দাশ জানান, পাহাড় ধসে মাটিচাপা পড়া দুই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আরো তিনজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সময় ওই বাড়িতে পরিবারের পাঁচ সদস্য ছিলেন।

সদর থানার ওসি ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, কয়েকদিন ধরে বান্দরবানে অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে। পাহাড় ধসে টিনের ঘর ভেঙে মাটিচাপা পড়ে দুই শিশু মারা যায়।

প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এর আগে ২০০৬ সালে জেলা সদরে পাহাড় ধসে ৩ জন, ২০০৯ সালে লামা উপজেলায় শিশুসহ ১০ জন, ২০১০ সালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ৫ জন, ২০১১ সালে রোয়াংছড়ি উপজেলায় ২ জন এবং ২০১২ সালে লামা উপজেলায় ২৮ জন ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ১০ জন মারা যায়।

মতামত