টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

“চট্টগ্রাম বন্দরসহ সবকিছুই আমরা ভারতকে দিয়ে দিয়েছি”

mahabub-bnpচট্টগ্রাম, ২০ জুন (সিটিজি টাইমস)::  বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোট ভাঙবে না, বরং আরো বেশি শক্তিশালী হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহাবুব হোসেন।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে স্বাধীনতা ফোরাম আয়োজিত ‘ভারতের সঙ্গে নতুন চুক্তি: প্রত্যাশা ও বাস্তবতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ-ভারতের ২২টি চুক্তির প্রসঙ্গ তিনি বলেন, ‘চুক্তিগুলোর বিষয়বস্তু কী সে বিষয়ে আমরা এখন অবগত হতে পারিনি। তাই সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি- অবিলম্বে চুক্তিগুলো সংসদে পেশ করুন এবং এ বিষয়ে আলোচনা করে জনগণকে অবহিত করুন।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বলেন, ‘মংলা ও চট্টগ্রাম বন্দরসহ সবকিছুই আমরা ভারতকে দিয়ে দিয়েছি। আর বিনিময়ে আমরা শুধু পেয়েছি ছিটমহল। তাই ভারত সরকারের কাছে আমাদের আশা, তারা তিস্তা চুক্তি সম্পন্ন করে বন্ধুত্বের সম্পর্ক সুদৃঢ় করবে।’

খন্দকার মাহবুব বলেন, ’২০-দলীয় জোট কে করে, জোটে কে থাকবে বা কে থাকবে না তা জোটের শীর্ষ নেতারা সিদ্ধান্ত নেবেন। এতে সরকারের মাথাব্যথা কেন?’

‘আমার জানা মতে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সরকারের এ কুচক্রে পা দিয়ে ২০-দলীয় জোটকে ভেঙে দেবেন না’ যোগ করেন তিনি।

বিএনপি ভারতবিরোধী- মন্ত্রী-এমপিদের এমন বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে দলটির এ নেতা বলেন, ‘বিএনপি কখনো ভারতবিরোধী ছিল না।’

তিনি বলেন, ‘৫ জানুয়ারির একতরফা নির্বাচনে ভারতের কংগ্রেস আওয়ামী লীগকে সমর্থন দিয়েছিল। তাই আমরা কংগ্রেসের বিরোধিতা করেছি, ভারতের জনগণের নয়।’

খন্দকার মাহবুব আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ‘নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য পদক্ষেপ নেবেন। কিন্তু তিনি যদি এ পদক্ষেপ না নেন তাহলে বাংলাদেশের জনগণ মোদির বিপক্ষে অবস্থান নেবে, ভারতের জনগণের বিপক্ষে নয়।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মো. রহমতউল্লাহর সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম বীরপ্রতীক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মতামত