টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মহাকাব্যিক জয়

spচট্টগ্রাম, ১৮ জুন (সিটিজি টাইমস): তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ভারতকে ৭৯ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে পরাজয়ের প্রতিশোধ নিল টাইগাররা। আর মাশরাফিবাহিনীর অবিস্মরণীয় এ জয়ের নায়ক নবাগত পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি একাই ৫ উইকেট তুলে নেন।

বৃহস্পতিবার সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৩০৭ রান তোলে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

জয়ের জন্য ৩০৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ভারতকে ভালো সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার- রোহিত শর্মা ও শিখার ধাওয়ান। দলীয় ৯৫ রানে ধাওয়ানকে (৩০) উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিমের তালুবন্দি করে এই জুটি ভাঙেন তাসকিন আহমেদ।

এরপর দলীয় ১০১ রানে বিরাট কোহলি মাত্র ১ রান করে তাসকিনের বলে মুশফিকের হাতে ধরা পড়েন। এতে অনেকটা ম্যাচে ফিরে স্বাগতিক শিবির।

আর দলীয় ১০৫ রানে অসাধারণ এক ডেলিভারিতে রোহিত শর্মাকে (৬৩) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার তালুবন্দি করান শুরু থেকেই নজরকাড়া বোলিং করতে থাকা অভিষিক্ত মুস্তাফিজুর রহমান।

দলীয় ১১৫ রানে মুস্তাফিজুরের বলে আজিঙ্কা রাহানের (৯) অসাধারণ ক্যাচ নেন নাসির হোসেন। দলীয় ৯৫ থেকে ১১৫ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত।

মুস্তাফিজ আর তাসকিনের সঙ্গে উইকেট শিকারে যোগ দেন তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তার বলে ধোনিকে (৫) দক্ষতার সঙ্গে তালুবন্দি করেন মুশফিক।

ইনিংসের ২৫তম ওভারে ধোনির ইচ্ছাকৃত ধাক্কায় আহত হয়ে মাঠ ছাড়েন মুস্তাফিজ। অবশ্য মাঠে ফিরে ফের জ্বলে উঠেন এই টাইগার পেসার। সুরেশ রায়নাকে (৪০) বোল্ড করে দেন তিনি। পরের বলেই মুশফিকের তালুবন্দি হন রবিচন্দ্রন অশ্বিন(০)। একপর্যায়ে ১৮৮ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারীরা।

এরপর দলীয় ১৯৫ রানে রবিন্দ্র জাদেজাকে (৩২) সৌম্য সরকারের তালুবন্দি করে অভিষেকে ৫ উইকেট তুলে নেন মুস্তাফিজ। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার বলে একহাতে মোহিত শর্মার (১১) দৃষ্টিনন্দন ক্যাচ নেন মুশফিক।

সাকিবের বলে উমেশ যাদব (২) লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়লে ৪৬ ওভারে ২২৮ রানে গুটিয়ে যায় ভারতের ইনিংস। আর তাতে ৭৯ রানের বড় জয় নিশ্চিত হয় টাইগারদের।

বাংলাদেশের পক্ষে অভিষিক্ত মুস্তাফিজুর রহমান ৯.২ ওভার বল করে ৫০ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন। তাসকিন আহমেদ আর সাকিব আল হাসান দুটি করে উইকেট নেন। বাকি উইকেটটি পান মাশরাফি বিন মর্তুজা।

এর আগে তামিম ইকবাল (৬০), সৌম্য সরকার (৫৪) আর সাকিব আল হাসানের (৫২) তিন অর্ধশতকে ভর করে ৪৯.৪ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩০৭ রান করে টাইগাররা। এটি ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ওয়ানডে স্কোর। আগের স্কোরটি ছিল ২৯৬ রান।

মেলবোর্নের প্রতিশোধ মিরপুরে

সদ্য সমাপ্ত অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত ভারত বনাম বাংলাদেশের মধ্যকার কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচের কথা নিশ্চয়ই সবার মনে আছে। কতকিছুই না ঘটে গিয়েছিলো সে ম্যাচে। বিশেষ করে রুবেল হোসেনের বিতর্কিত “নো” বল আর শিখর ধাওয়ানের বিতর্কিত “ক্যাচ” এর কথা তো কারও ভোলার কথা নয়।

ওই ম্যাচে কয়েকটি বিতর্কিত সিদ্ধান্তের কারণেই সহজ জয় তুলে নিয়েছিলো ভারত। বিশ্বকাপের ওই একটি ম্যাচ নিয়ে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মুখে সমালোচনা হয়েছে অনেক। দুই আম্পায়ার ইয়ান গোল্ড ও আলিম দারকে অনেকে অনেক কিছুই বলেছেন। সময়ের পরিবর্তনে সেদিনের স্মৃতি হয়ত অনেকের মন থেকে মুছে গেছে। কিন্তু টাইগার খেলোয়াড় ও সমর্থকরা তো আর তা ভুলে থাকতে পারে না।

সেই ১৯ মার্চ মেলবোর্নে তৈরি হওয়া ক্ষতের কারণে ১৬ কোটি বাঙালি প্রতিটি দিনরাত কেঁদেছে। তারপরও সকলে ছিলো একটি প্রতিশোধের অপেক্ষায়। অবশেষে তার অবসান ঘটলো।

বৃহস্পতিবার মিরপুরে ভারতকে যেভাবে হারালো এর চেয়ে মেলবোর্নের প্রতিশোধ আর কি হতে পারে। মেলবোর্নে ওই কয়েকটি “বিতর্কিত” সিদ্ধান্ত না হলে সেদিনও হয়ত এরকম কিছু একটা ঘটতে পারতো। সেদিন বাংলাদেশ হেরেছিল ১০৯ রানে। আর আজ বাংলাদেশ জিতলো ৭৯ রানে।  তবে যাই হোক, অতীত নিয়ে আর ভেবে লাভ নেই। মাশরাফিরা যে যোগ্য প্রতিশোধ নিয়েছে তাতেই সন্তুষ্ট টাইগার ভক্তরা।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত