টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

শীর্ষ সন্ত্রাসী আগুনকে আটক করেছে গুইমারা সেনাবাহিনী

জেএসএস নেতা হত্যা মামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী

আবদুল মান্নান
মানিকছড়ি (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি

1চট্টগ্রাম, ১৬ জুন (সিটিজি টাইমস):: গুইমারা রিজিয়নের আওতাধীন মানিকছড়ি, রামগড়, গুইমারার ত্রাস ও জেএসএস নেতা জাপান হত্যা মামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী এবং ইউপিডিএফ সন্ত্রাসী অংথোয়াই মারমা ওরফে আগুন (৪৫)কে গতকাল সন্ধ্যায় আটক করেছে সেনাবাহিনী।

পুলিশ ও সেনাবাহিনী সূত্রে জানা গেছে, গুইমারা রিজিয়নের আওতাধীন মানিকছড়ির পান্নাবিল, বড়বিল, ছদুরখীল, তুলাবিল, কালাপানি, ডলু, শিম্প্রুপাড়া, তবলাপাড়া, উত্তর ডলু, ভোলাইয়া পাড়া, ডাইনছড়ি, রামগড় উপজেলার নাকাপা, পাইল্লাভাঙ্গা এবং গুইমারার সিন্দুকছড়ি, জালিয়া পাড়া, বড়পিলাক, বুদং পাড়া, নন্দুক্যাপাড়াসহ এ অঞ্চলের ত্রাস ও ইউপিডিএফ এর শীর্ষ সন্ত্রাসী এবং মানিকছড়ি জেএসএস নেতা মংসাথোয়াই মারমা ওরফে জাপান ও শিক্ষক চিংসামং চৌধুরী হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী অংথোয়াই মারমা ওরফে আগুন (৪৫)কে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আটক করেছে সেনাবাহিনী।

গুইমারা সাব জোনের লে. আবদুর রহমানের নেতৃত্বে একদল সেনাবাহিনী গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নন্দ্যুক্কা পাড়া থেকে আটক করে। সে দীর্ঘদিন যাবত এসব এলাকায় চাঁদাবাজি, অপহরন ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে নিরীহ জনগনকে জিম্মি করে আসছিল। তার আটকের তাৎক্ষনিক খবরে উল্লেখিত এলাকায় নিরীহ ভূক্তভোগী গ্রামবাসীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছে। সে গুইমারার বুদং পাড়ার কংহ্লাঅং মারমার ছেলে। তার বিরুদ্ধে মানিকছড়িতে জেএসএস নেতা হত্যা মামলায় পরিকল্পনাকারী ও গুইমারা থানায় একাধিক চাঁদাবাজীর ঘটনায় তার সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে দাবী করেছে সেনাবাহিনী। এ ব্যাপারে গুইমারা থানার ওসি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে কোন কোন মামলা রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সন্ত্রাসী আগুনকে গুইমারায় পুলিশ ও সেনাবাহিনী জিজ্ঞাসাবাদ করছিল।

মতামত