টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মোদিকে যা বললেন খালেদা

bnpচট্টগ্রাম, ০৭ জুন (সিটিজি টাইমস) :: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিএনপি নেত্রী খালেদার জিয়া বৈঠকে বাংলাদেশে গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি নিয়ে কথা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান।

রবিবার বিকাল ৫টায় হোটেল সোনারাগাঁওয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

রবিবার বিকাল চারটার পর হোটেল সোনারগাঁওয়ে এ বৈঠক শুরু হয়।

বৈঠকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, ড. ‌আবদুল মইন খান, নজরুল ইসলাম খান এবং চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহউদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

ড. মঈন খান বলেন, বৈঠকে পারস্পরিক সম্পর্কের বিষয়গুলি নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা হয়েছে।

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা নেতা বলেন, বৈঠকে দেশের গণতন্ত্র ছাড়াও দেশের যুব সম্প্রদায় ও শিশুদের উন্নয়ন নিয়েও কথা হয়েছে। তবে সবচেয়ে যে বিষয়টি নিয়ে বেশি কথা হয়েছে সেটা হলো দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক উন্নয়নের দিকে জোর দিয়েছেন। সেই উন্নয়ন টেকসই হতে হলে গণতন্ত্রের শক্তিশালী ভিত্তির উপর জোর দিতে হবে। গণতন্ত্র ছাড়া উন্নয়ন টেকসই হতে পারে না।

আমরা যতই বলি না কেন উন্নয়ন আগে, গণতন্ত্র পরে এটা সম্ভব নয়। দেশে যদি মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা না থাকে, দেশের বিচার ব্যবস্থা যদি স্বাধীন না থাকে, পুলিশ বিভাগ যদি নিরপেক্ষ না থাকে তাহলে গণতন্ত্র টেকসই হতে পারে না।

মোদি-খালেদা একান্তে বৈঠক

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া একান্তে বৈঠক করেছেন। প্রতিনিধিদলসহ প্রথমে বৈঠক করার পর খালেদা জিয়ার সঙ্গে আলাদাভাবে বৈঠক করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।
আজ রবিবার বিকাল ৪টার পর শুরু হয় এই বৈঠক। রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে পৌনে পাঁচটা পর্যন্ত চলে এই বৈঠক।

মতামত