টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রাম বন্দরে ১০০ কোটি টাকারও বেশি কোকেন আটক

bandarচট্টগ্রাম, ০৭ জুন (সিটিজি টাইমস) ::চট্টগ্রাম বন্দরের সিসিটি ইয়ার্ডে কন্টেইনার ভর্তি শতকোটি টাকা মূল্যের তরল কোকেন আটকের দাবি করছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। আটকের পর তা সিলগালা করা হয়েছে বলে রবিবার শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. মালেকীন জানান। তিনি আরও জানান, সোমবার সকালে সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতিতে তা খোলা হবে।


সহকারী পরিচালক মো. মালেকীন জানান, শনিবার চট্টগ্রাম বন্দরের সিসিটি ৩ নম্বর ইয়ার্ডে অবস্থিত একটি কন্টেইনারটি সিলগালা করা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোজ্যতেলের ঘোষণা দিয়ে একটি চোরাচালান চক্র ১০০ কোটি টাকা মূল্যের তরল কোকেন আমদানি করেছে জেনে তা সিলগালা করা হয়েছে।


তিনি বলেন, ‘সোমবার সকালে পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারী, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কাস্টম ও শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে তা খোলা হবে।’


নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) বনজ কুমার মজুমদার জানান, সানফ্লাওয়ার তেলের নামে কোকেন আসছে এমন তথ্যে শনিবার পুলিশ সদর দফতরের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারী বিষয়টি আমাকে অবহিত করেন। পরে নগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার এসএম তানভির আরাফাতের নেতৃত্বে ডিবির একটি টিম বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নামেন।


তদন্তে জানা যায়, নবী মার্কেট, ২৩২ খাতুনগঞ্জ ঠিকানা ব্যবহার করে সানফ্লাওয়ার তেল আমদানির ঘোষণা দিয়ে এক কন্টেইনার (সিডিএইচইউ-৯১৪৫৭৬৯/১৯৩৮৪৪) পণ্য আমদানি করে খান জাহান আলী লিমিটেড। ওই কন্টেইনারে ১০৭টি ড্রামে দুই হাজার ১৪০ কেজি ‘তরল কোকেন’ রয়েছে। এরপর শনিবার বিকেলে ওই প্রতিষ্ঠানটি ঘেরাও করে মালিক নূর মোহাম্মদকে আটক করা হয়। ঘটনায় জড়িত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সোহেলকেও পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসে।


জিজ্ঞাসাবাদে সোহেল জানান, ইংল্যান্ড প্রবাসী খালাত ভগ্নিপতি তার বন্ধুর মাধ্যমে বলিভিয়া থেকে ওই চালান আমদানি করেন। চালানে সানফ্লাওয়ার তেল আছে বলে তিনি জানেন। তবে কোকেন থাকার বিষয়টি তিনি অবগত নন বলে জানান পুলিশকে।

মতামত