টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মুহিতের টানা সপ্তম বাজেট আজ

Budgetচট্টগ্রাম, ০৪ জুন (সিটিজি টাইমস) :: আজ সংসদে উত্থাপিত হতে যাচ্ছে ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরের বাজেট। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাজেট উপস্থাপন করবেন।

মহাজোট সরকারের অধীনে এ নিয়ে টানা সাতবারের মতো বাজেট উপস্থাপন করতে আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এছাড়া মহাজোট সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের দ্বিতীয় এবং ব্যক্তিগতভাবে নবমবারের মতো বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করবেন তিনি।

অর্থমন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন অর্থবছরের বাজেটের সম্ভাব্য আকার হচ্ছে ২ লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকা, যা এ যাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ। এছাড়া প্রবৃদ্ধি ধরা হচ্ছে ৭.১ শতাংশ।

সূত্রে আরও জানা যায়, এবারের বাজেটে প্রস্তাবে মোট আয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ১০ হাজার ৪৪৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে এক লাখ ৭৭ হাজার ৩৭০ কোটি টাকা। আয় ও মুনাফার ওপর কর আরোপ করে পাওয়া যাবে ৬৫ হাজার ৯৭১ কোটি টাকা। মূল্য সংযোজন কর (মূসক) থেকে আসবে ৬৪ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা।

সম্পূরক শুল্ক থেকে আদায় ২৫ হাজার ৮৭৫ কোটি টাকা। আমদানি শুল্ক ১৮ হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা। এবং অন্যান্য আয় হিসেবে ধরা হয়েছে আরো ২ হাজার ৫০৮ কোটি টাকা। এনবিআর বহির্ভূত কর ছয় হাজার ৫০০ কোটি টাকা। এবং কর ব্যতীত প্রাপ্তি ধরা হয়েছে (এনটিআর) ২৭ হাজার ৩৪৫ কোটি টাকা।

এবারও বাজেটে থাকছে বড় ঘাটতি। প্রস্তাবিত বাজেটে ৮৮ হাজার ৬৫৭ কোটি টাকার ঘাটতি পূরণে ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়া হবে ৩৮ হাজার ৬২৩ কোটি টাকা এবং আর সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ নেয়া হবে ১৮ হাজার কোটি টাকা। ঘাটতি মেটাতে ২৪ হাজার ৩৩৪ কোটি টাকার বিদেশি ঋণ নেয়া হবে। অনুদান ধরা হয়েছে ৫ হাজার ৮০০ কোটি টাকা। এছাড়া করমুক্ত আয়সীমা ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

এবার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি ধরা হচ্ছে প্রায় ৯৭ হাজার কোটি টাকা। এবারই প্রথমবারের মতো শিশু বাজেট উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী। প্রাক বাজেট আলোচনায় পোশাক খাতের ওপর কর আরোপ এবং আয়করের আওতা বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি। বাজেট প্রস্তাবনায় এ ব্যাপারে সুর্নিদিষ্ট প্রস্তাব দেয়া হতে পারে।

বাজেট উপস্থাপনের পরদিন অর্থাৎ আগামী ৫ জুন শুক্রবার বিকাল ৪টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপনের পর সারা মাসজুড়ে তা নিয়ে সংসদে আলোচনা চলবে এবং প্রয়োজনীয় সংশোধনীর পর আগামী অর্থবছর শুরুর ঠিক আগে বাজেট অর্থবিল আকারে সংসদে পাস হবে।

মতামত