টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চবিতে লুটপাটের ঘটনায় ২১ আবেদন

cuচট্টগ্রাম, ২৪ মে (সিটিজি টাইমস) ::: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এ এফ রহমান ও আলাওল হলে লুটপাটের ঘটনায় কর্তৃপক্ষের নিকট ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদন করেছে শিক্ষার্থীরা। এ পর্যন্ত ২১টি আবেদন জমা পড়েছে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। 

এদিকে, গতকালের লুটপাটের ঘটনার জন্য সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছাত্রলীগকে দায়ী করছে। ঘটনার তদন্তের জন্য হল দুটির পক্ষ থেকে পৃথক দুটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই হলে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। একপর্যায়ে ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীরা হল দুটি ছেড়ে পালিয়ে যান। এর পরপরই বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হল দুটিতে ব্যাপক লুটপাট করেন বলে অভিযোগ করেছে হল কর্তৃপক্ষ।

এ এফ রহমান হল সূত্র জানায়, শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত ১৬ জন শিক্ষার্থী ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদন করেছেন। এর মধ্যে নয়জন শিক্ষার্থী ল্যাপটপ হারানোর কথা বলেছেন। অন্যরা মুঠোফোন, টেবিল ফ্যান, নগদ টাকাসহ কাপড়চোপড় হারানোর কথা উল্লেখ করেছে।

অন্যদিকে আলাওল হল সূত্র জানায়, এই হলে আবেদন জমা পড়েছে পাঁচটি। এখানেও ল্যাপটপ, মুঠোফোন, টেবিল ফ্যান লুটের কথা বলা হয়েছে।

ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদন করা এ এফ রহমান হলের ৪৩৪ নম্বর কক্ষের আবাসিক শিক্ষার্থী প্রসুন কুমার দাশ বলেন, ‘ঘটনার সময় আমি একটি অনুষ্ঠানে ছিলাম। পরে ঝামেলা শেষ হলে রাতে রুমে এসে দেখি দরজা ভাঙা। রুমে থাকা আমার ল্যাপটপ ও মডেম খুঁজে পাইনি।’

মতামত