টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়িতে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখমের পর গুলি

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি প্রতিনিধি

fatickchari(injured-josim)-চট্টগ্রাম, ২৩ মে (সিটিজি টাইমস) :: এক সময় সন্ত্রাসের জনপদ হিসেবে খ্যাতি ছিল ফটিকছড়িবাসীর ললাটে। ধীরে ধীরে সেই দূর্ণাম মুছে যখন শান্তির বিরানভূমিতে প্রতিষ্টা পেল ফটিকছড়ি, ঠিক তখনই আবারো ফটিকছড়ি অশান্তির দিকে পা বাড়াচ্ছে। গত ১৯ মে উপজেলার ধর্মপুর কমিটিহাটে বালি মহাল দখল নিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের মধ্যে অস্ত্রের ব্যবহারের চারদিন পর শুক্রবার রাতে উপজেলা সদরে বাসায় ঢুকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে মারাত্বক জখম করার পর গুলি করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত মো.জসিম উদ্দিন বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডেকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি ফটিকছড়ি পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি, এছাড়া বিবিরহাট বজারের একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী। তিনি পৌরসভার দক্ষিন রাঙ্গামটিয়া রমজান আলী মুন্সির বাড়ির মৃত আজিজুল হকের সন্তান।

ঘটনার বিবরণে চিকিৎসাধীন আহত আ‘লীগ নেতা জসিম উদ্দিন বলেন, ‘রাত তখন দু‘টা। আমি স্বপরিবার নিয়ে উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন (আধুিনক কিন্ডার গার্টেন ভবন) এর ভাড়া বাসায় গুমাচ্ছিলাম। হঠাৎ ঘরের দরজায় শব্ধ শুনে এগিয়ে আসলে দেখতে পাই মুখোশধারী চার সন্ত্রাসী। তাদের সকালের হাতে অস্ত্র। কোন প্রকার কথা না বলেই প্রথমে তারা আমার মাথায় কুপিয়ে জখম করে, আমি তাদের প্রতিরোধ করার চেষ্টা করি। পরে তারা আমাকে আরো কয়েকটি কুপ দেয়। আমি তাতেই লুটিয়ে পড়ি, আমার স্ত্রী সন্তানরা চিৎকার করলে তারা আমার বাম পায়ে গুলি করে পালিয়ে যায়।’
তিনি আরো জানান, কারো সাথে তার শত্র“তামী নেই। তবে, তিনি রাজনীতির মাঠে সবসময় সরব থাকেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, দ্বিতল ভবনের গেইটের তালা ভেঙ্গে সন্ত্রাসীরা উপরে উঠে। ওই ফ্ল্যাটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে রক্ত। আহত জসিমের এক মেয়ে দুই ছেলে।

তার মেয়ে আঁকি আকতার বলে, ‘আমাদের বাসা থেকে কোন মালামাল কিংবা টাকা পয়সা লুট করেনি তারা। আমার আব্বুকে হত্যা করার জন্যই আসছিল সন্ত্রাসীরা।’

ঘটনার পর পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান ফটিকছড়ি থানার ওসি মফিজ উদ্দিন। তিনি বলেন, বিষয়টি খুবই গুত্বসহকারে পর্যবেক্ষন করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে মামলা পক্রিয়াধীন।

এদিকে সকালে উপজেলা সদরের আ‘লীগ নেতা জসিমের উপর হামলার প্রতিবাদে মিছিল করেছে ফটিকছড়ি ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। মিছিল শেষে তারা প্রকৃত হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওয়তায় নিয়ে আসার দাবী জানান।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত