টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

লোহাগাড়ায় জায়গা-জমি সংক্রান্ত বিরোধে সরকারদলীয় কর্মী খুন

আরফাত হোছাইন বিপ্লব
লোহাগাড়া প্রতিনিধি

khunচট্টগ্রাম, ২২ মে (সিটিজি টাইমস) :: চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের নাছির মোহাম্মদ পাড়ার মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন (২৮) দুর্বত্তের হামলায় নিহত হয়েছেন। তিনি একই এলাকার মৃত রহমত আলীর ছোট সন্তান। কেউ কেউ বলছেন তিনি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আবার কেউ তাকে যুবলীগ কর্মী বলেও জানিয়েছেন। তবে পুলিশ জানিয়েছেন তিনি সরকারদলীয় রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন।

জানাযায়, গত ২১ মে বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় কামাল উদ্দীন স্থানীয় গ্রাম্য দোকান থেকে বাড়ীতে যাবার পথে ৩ জন মুখোশদারী যুবক কিরিচ নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে তারা তাকে মৃত ভেবে ফেলে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তার রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে উপজেলার পদুয়া সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে তাকে পটিয়ার বিজিসি ট্রাষ্টে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাবার পথে রাত ১১ টায় মারা যান।

এখনও পর্যন্ত এ ঘটনার ক্লু পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন লোহাগাড়া থানার ওসি মোহাম্মদ শাহজাহান পিপিএম।

এদিকে ইউনিয়ন জামায়াতের আমীর ও স্থানীয় মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানা শামছুল আলম হেলালী ও শিবির নেতা মোহাম্মদ আবচারকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি। এদিকে নিহত মোহাম্মদ কামাল উদ্দীনের খালাত ভাই মীর আহমদ জানান, তার খালা ও নিহতের মা আলমাস খাতুন দাবী করছেন তার সন্তান কামালকে তাদের অপর পুত্র মোহাম্মদ আলমগীরই খুন করেছে।

খোজ নিয়ে জানা গেছে, নিহত কামাল উদ্দীনরা ৪ ভাই। তাদের বাবা জীবিতাবস্থায় ২য় সন্তান মোহাম্মদ আলমগীরকে ত্যাজ্য করে অপর ৩ ভাইয়ের মাঝে তার সম্পত্তি রেজিষ্ট্রি ও বন্টন করে দিয়ে যান। সম্পত্তির বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভাইয়ে ভাইয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হবার ক্ষোভে মোহাম্মদ আলমগীর তার ছোট ভাইকে খুন করেছেন বলে তার মা দাবী করছেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত