টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আশ্রয় দিতে সম্মত ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া

চট্টগ্রাম, ২০ মে (সিটিজি টাইমস) ::   দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সাগরে নৌকায় ভাসতে থাকা হাজারো অভিবাসন-প্রত্যাশীদের সাময়িক আশ্রয় দিতে সম্মত হয়েছে ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া।

একইসঙ্গে মিয়ানমারও অবৈধপথে নৌযানে চড়ে বিভিন্ন দেশে পাড়ি দেওয়া অভিবাসীদের মানবিক সহায়তায় প্রস্তুত আছে মিয়ানমার। আজ বুধবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে সাগরভাসা অসহায় মানুষের আশ্রয় পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। এটাকে একটি বড় অর্জন হিসেবে দেখা হচ্ছে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ‘অভিবাসী সংকট’ নিয়ে আজ বুধবার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত তিন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠেয় এ বৈঠকে অংশ নেয় তিন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলাদেশ ও মিয়ানমার থেকে সমুদ্র পথে যাওয়া অবৈধ অভিবাসীদের বিষয়ে করনীয় ঠিক করতে এ বৈঠকের আহ্বান করেন থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। এটিকে একটি আঞ্চলিক সমস্যা হিসেবে দেখছে ইন্দোনেশিয়া। কুয়ালালামপুরে বৈঠকে অংশ নেওয়া দেশ তিনটি হলো ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ড।

সাগরে নৌকায় ভাসতে থাকা হাজারো অভিবাসন-প্রত্যাশীদের তীরে ভিড়তে না দেওয়ায় এই দেশ তিনটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমালোচনার মুখে পড়ে।

আঞ্চলিক অভিবাসী সংকট সমাধানে প্রথমবারের মতো সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে মিয়ানমার। এত দিন দেশটি এই সংকটের দায় অস্বীকার করে আসছিল।

আঞ্চলিক অভিবাসী সংকটের দায় প্রশ্নে মিয়ানমার যে কিছুটা নমনীয় হয়েছে, দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এই বিবৃতিটি সেটাই ইঙ্গিত করছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম-এর হিসাব মতে তীরে পৌছানোর অপেক্ষায় এখন সাগরে ভাসমান আছেন প্রায় ৬ হাজার অভিবাসী।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত