টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে চার ট্রাক অবৈধ কাঠ আটক নিয়ে বনকর্মকর্তাদের লুকোচুরি

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ১০মে এপ্রিল (সিটিজি টাইমস) :: মিরসরাই-ফটিকছড়ি সড়ক দিয়ে পাচারকালে চার ট্রাক অবৈধ কাঠ আটক করা হলেও সাংবাদিককের তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে বনবিভাগের কর্মকর্তারা। শনিবার (৯ মে ) রাতে মিরসরাই-ফটিকছড়ি সড়কের ব্রাক হ্যাচারী এলাকার পূর্বপাশ থেকে কাঠগুলো আটক করেছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

ফটিকছড়ির কালাপানিয়া থেকে কাঠবোঝায় ট্রাকগুলো মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাট কাঠ বাজারে যাচ্ছিল। এ খবর পেয়ে করেরহাট বনবিভাগের এসিএফ মোহাম্মদ হোসাইনের নেতৃত্বে কাঠসহ ট্রাকগুলো আটক করে করেরহাট বনবিভাগ অফিসে নিয়ে যায়। কাঠগুলো ক্ষমতাসীন দলের মিরসরাই সদরের কয়েকজন নেতা নিয়ে আসছে বলে জানা যায়।

কাঠ আটকের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে এ প্রতিবেদক মিরসরাই বিটের একজন কর্মকর্তা (এসফি) মো. আহসান উল্লাহ‘র মোবাইলে কল করা হলে তিনি বিট কর্মকর্তা জিয়াউর রহমানের সাথে কথা বলতে বলেন। মিরসরাই বিট কর্মকর্তা আবু নাছের জিয়াউর রহমানের কাছে কাঠ আটকের বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি অসুস্থ বাইরে আছি। আপনি ৩০ মিনিট পরে আমাকে ফোন দেন। ৩০ মিনিট পরে ফোন দিলে তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর করেরহাট বনবিভাগের এসিএফ মোহাম্মদ হোসাইনের মোবাইলে কল করলে কাঠ আটকের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমি সারারাত ঘুমাইনি । এখন ঘুমাচ্ছি, আপনি একঘন্টা পরে কল করেন। একঘন্টা পরে একাধিকবার তার ব্যক্তিগত মোবাইলে (০১৭৬১৪৯৪৭৪৭) একাধিকবার কল করলেও মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়।

জানা গেছে, বিভিন্ন সময় অবৈধ কাঠ আটক করলেও কাঠ পাচারকারীর সাথে আঁতাত করে আটককৃত কাঠগুলো টাকার বিনিময়ে তাদের দিয়ে দেয়। মামলায় অল্পমূল্যোর কিছু কাঠ দেখানো হয়। সর্বশেষ এ রির্পোট লেখার সময় রবিবার বিকেল সাড়ে পাচটায় বনকর্মকর্তাদের মোবাইল নম্বরগুলো বন্ধ রয়েছে।

মতামত