টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে বিএনপির ভোট বর্জন

চট্টগ্রাম, ২৮ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে (চসিক) ভোট বর্জন করলেন বিএনপি সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী এম মনজুর আলম।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিপক্ষে ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে তিনি মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘোষণা দেন।

একই সঙ্গে মনজুর আলম রাজনীতি থেকেও সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। চট্টগ্রামে মনজুর দেওয়ান হাটের কার্যালয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘বিগত ২৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে আমি কাউন্সিলর ও মেয়র পদে দায়িত্ব পালন করেছি। কিন্তু এমন নজিরবিহীন কারচুপির ঘটনা দেখিনি।’

এ সময় সেখানে উপস্থিত থাকা বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘সকাল ১০টার মধ্যে প্রায় ৮০ ভাগ ভোটকেন্দ্র দখল হয়ে গেছে। এখানে জনগণের সঠিক সিদ্ধান্তের প্রতিফলন ঘটবে না। এ কারণে আমরা নির্বাচন থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়েছি।’

এর আগে ভোটকেন্দ্র দখলের অভিযোগ করেন বিএনপি সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী মনজুর আলম। সিটি করপোরেশনের ৪১ ওয়ার্ডের প্রায় ১২টি কেন্দ্র সকাল নয়টার মধ্যে দখল করে নেওয়ার অভিযোগ করেন তিনি।

মনজুর আলম বলেন, কেন্দ্র দখলের মাধ্যমে চট্টগ্রামে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ বিনষ্ট করা হচ্ছে। এ মুহূর্তে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হলে তিনিই জয়ী হবেন।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে উত্তর কাট্টলী হাজী দাউদ আহমদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেওয়ার পর মনজুর আলম এ অভিযোগ করেন।

তবে এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে নাছির উদ্দিন বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ ভোট হচ্ছে। কোথাও কোনো অনিয়ম হচ্ছে না। এ নির্বাচনে তিনিই জয়ী হবেন। জয়টা সময়ের ব্যাপার মাত্র।’

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সঙ্গে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনেও সকাল আটটায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১৪টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড ও ৪১টি সাধারণ ওয়ার্ডে মেয়র পদে ১২ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর ৬২ ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২১৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মোট ভোটার সংখ্যা ১৮ লাখ ১৩,৪৪৯ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার আট লাখ ৭৬,৩৯৬ জন এবং পুরুষ ভোটার নয় লাখ ৩৭,০৫৩ জন।

মতামত