টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চসিক নির্বাচন: জয়মালা কার গলায়, চলছে নানা বিশ্লেষণ

ccচট্টগ্রাম, ২৭ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস): রাত পোহালেই চট্টগ্রাম সিটিতে ভোট। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে চট্টগ্রামবাসী। কার গলায় উঠবে জয়মালা, সে নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা কল্পনা।

প্রতি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনের আগে বড় ধরনের জরিপ হলেও এবার হয়নি তেমন। তবে কার দিকে ঝুঁকছে মানুষ সে হিসাব-নিকাশ চলছে মুখে মুখে।  চট্টগ্রামে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি শিবিরে চলছে এনিয়ে চুলছেড়া বিশ্লেষণ।

সাধারণ ভোটাররা বলছেন, সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নানা হিসাব থাকলেও মূল লড়াইটা হবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি শিবিরে। কারণে এই দুই শিবিরেই বিভক্ত জাতিকূল।

তবে এবারের নির্বাচনে প্রার্থীদের নিজ দলের বড় নেতাদের মনোভাব আর সমর্থনের ওপরও নির্ভর করছে অনেক কিছু। এছাড়া আঞ্চলিকতা তো আছেই।

কে হচ্ছেন আগামী ৫ বছরের জন্য চট্টগ্রাম মহানগরীর অধিপতি? ১৮ লক্ষ ১৩ হাজার ৪৪৯ জন ভোটারের রায় কোন দিকে ? স্বপ্নের মেগাসিটি গড়েত কি নাছিরের পক্ষে নাকি অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে মনজুরের পক্ষে?

রাত পোহালেই সেই বহুল প্রতিক্ষীত চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট। শুরু হয়েছে ক্ষণ গণনা। মঙ্গলবার সকাল ৮টায় নগরীর ৭১৯টি কেন্দ্রে একযোগে শুরু হবে ভোট গ্রহণ। নির্বাচন কমিশন সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। এখন অপেক্ষার পালা নগরবাসী কাকেই বেছে নেন? সেটি জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে মঙ্গলবার মধ্য রাত পর্যন্ত। নগরবাসীসহ দেশ-বিদেশের অনেকেরই তীক্ষ্ম নজর থাকবে বন্দর নগরীর উচ্চ মাত্রার মর্যদাপূর্ণ এই নির্বাচনের দিকে।

এদিকে নির্বাচনী প্রচারণা শেষ করে সোমবার দিনভর নিজের পরিবার ও নেতাকর্মীদের সাথে সময় কাটিয়েছেন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে অংশ নেওয়া ১২ প্রার্থীর মধ্যে অন্যতম প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বি আ জ ম নাছির উদ্দিন ও মনজুর আলম। দুই জনই শুনিয়েছেন বিজয়ের আশার বাণী।

প্রচারণায় অনেকটা এগিয়ে থাকায় পরিবর্তনের ডাক দেওয়া আওয়ামী লীগ সমর্থিত নাছির অনেকটা নির্ভার হলেও বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর সরকারী দলের হামলায় অনেটা শঙ্কিত বিএনপি সমির্থত মেয়র প্রার্থী মনজুর আলম। এরপরও ভোটের ফলাফলে দুই জনই নিজেকে রাখছেন এগিয়ে।

এখন দেখার বিষয়-জীবনে প্রথমবারের মত নির্বাচনের মাঠে লড়তে আসা রাজনীতিক নাছিরের ৩৬ দফা কিংবা মনজুরের ব্যর্থতার চিত্র নগরবাসীকে কতটুকু প্রভাবিত করতে পেরেছে। নাকি নির্বাচনে অভিজ্ঞ মনজুর ৫৪ দফা কিংবা বিনয়ী ও সৎ ইমেজেই ফের বাজিমাত করেন।

তবে বাহ্যিক দৃষ্টিতে ভোটের হিসাব নিকাশ এভাবে করা হলেও ভোটের রাজনীতিতে পাল্টে যেতে পারে ড্রইং রুমের রাজনীতি। দলীয় কোন্দল ও নেতৃত্বের দ্বন্দ্বে সেই হিসাবে অনেকটা পিছেয়ে রয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন।

অন্যদিকে দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হয়ে দলীয় কর্মকাণ্ডে নিষক্রিয় হলেও নগর বিএনপির প্রায় শীর্ষ নেতাই সাবেক মেয়র মনজুর আলমের পক্ষে থাকায় সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন তিনি।

এবার সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ১৮ লক্ষ ১৩ হাজার ৪৪৯ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটার হচ্ছে ৯ লাখ ৩৭ হাজার ৫৩ জন এবং নারী ভোটার হচ্ছে ৮ লাখ ৭৬ হাজার ৩৯৬ জন। এদের মধ্যে নতুন ও সংখ্যালঘু ভোটার রয়েছে প্রায় তিন লক্ষাধিক। এসব ভোটারের মধ্যে নারী ভোটারদের অধিকাংশ ভোট যদি বিএনপি-জামায়াতা-হেফাজত মনোভাবাপন্নতার কারণে মনজুর আলম পান অন্যদিকে সংখ্যালঘু ও তরুণ ভোটারদের ভোট পাবেন স্মার্ট রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত মেগাসিটির স্বপ্নদ্রষ্টা আ জ ম নাছির উদ্দিন।

মতামত