টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি: আহত ৩, স্বর্ণ ও টাকা লুট

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ২৪ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস)::পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে। ডাকাত দল দুটি বাড়িতে ডাকাতির চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত একটি বাড়িতে ডাকাতি করতে সক্ষম হয়। বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) গভীর রাতে উপজেলার হিঙ্গুলী ইউনিয়নের পূর্ব হিঙ্গুলী গ্রামের ফখরুদ্দীন ও মাকু মিয়ার বাড়িতে এঘটনা ঘটে। এসময় ডাকাতের অস্ত্রের আঘাতে পূর্ব হিঙ্গুলী গ্রামের খুরশিদুল হকের পুত্র ফখরুদ্দীন (৫০), তার স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন (৩০) ও আত্মীয় সাগর (১৬) আহত হন।

ভুক্তভোগিরা দাবি করেন এসময় ডাকাতরা চার পরিবারের ২৫ ভরি স্বর্ণ, আড়াই লাখ টাকা নিয়ে যায়। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) ভর্তি করা হয়েছে।

হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য (মেম্বার) সাহাব উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে প্রথমে মাকু মিয়ার বাড়িতে ডাকাতদল হানা দেয়। এসময় ডাকাতরা বাড়ির পাশে অবস্থিত মসজিদের ইমামকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গ্রিলের তালা কেটে ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে। কিন্তু গ্রামের লোকজন ও পুলিশ চলে আসায় ডাকাত দল পালিয়ে যায়। পরে একই গ্রামের ফখরুদ্দীনের বাড়ির গ্রিল কেটে ঘরে ঢুকে পরিবারের লোকজনকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।

ফখরুদ্দীনের ছোট ভাই নিজাম উদ্দিন জানান, ডাকাতদল পুলিশ পরিচয় দিয়ে ঘরে প্রবেশ করার চেষ্টা করে। ঘরের দরজা না খোলায় গ্রিলের তালা কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। পুলিশের পরিচয় পেয়ে তারা ভয় পেলেও এসময় তার বড় ভাই ফখরুদ্দীন বাধা দিলে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাতœক জখম করে। পরে তার স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন ও আত্মীয় সাগরকেও ডাকাতরা কুপিয়ে জখম করে। এসময় ডাকাতরা চার পরিবারের ২৫ ভরি স্বর্ণ ও নগদ আড়াই লাখ টাকা নিয়ে যায়। পরে আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের অবস্থা আশংকাজনক বলেও তিনি জানান।

জোরারগঞ্জ থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, রাতে ডাকাতির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পুলিশ আসার খবর পেয়ে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ চলে এলে অন্য একটি বাড়িতে ডাকাতি করে। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।

মতামত