টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চসিক নির্বাচন, ২৫ এপ্রিল থেকে বহিরাগতরা চট্টগ্রামে থাকতে পারবেনা

ccc-Copy1চট্টগ্রাম, ২২ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ কেন্দ্রে থাকবে ২৪ জন এবং সাধারণ কেন্দ্রে থাকবে ২২ জন সদস্য। মোট ৭১৯টি ভোটকেন্দ্রের ভেতরে ‍১৭ হাজার পুলিশ ও আনসার মোতায়েন মোতায়েন থাকবে।  ‍বুধবার নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে নির্বাচন কর্মকর্তাদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠকে আরও সিদ্ধান্ত হয়েছে, ২৫ এপ্রিল রাত ১২টার পর থেকে কোন বহিরাগত চট্টগ্রামে থাকতে পারবেনা।২৬ এপ্রিল রাত ১২টা থেকে সব ধরনের প্রচারণা বন্ধ থাকবে। ২৭ এপ্রিল রাত ১২টা থেকে নগরীতে অনুমোদিত ছাড়া বাকি সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে।

বৈঠক শেষে রিটার্নিং অফিসার মো.আবদুল বাতেন প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, ৭১৯টি কেন্দ্রে শুধুমাত্র ভোটগ্রহণের জন্য ১৭ হাজার ফোর্স মোতায়েন থাকবে। এরা ভোটকেন্দ্রের ভেতরে থাকবে। গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে আমরা ২৪ জন এবং সাধারণ কেন্দ্রে ২২ জন করে ফোর্স মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।কেন্দ্রের বাইরে ওয়ার্ডভিত্তিক থাকবে র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি’র আলাদা আলাদা স্ট্রাইকিং ফোর্স। ৩০ প্লাটুন বিজিবি সদস্য নির্বাচনী কাজে মোতায়েন থাকবে। স্ট্রাইকিং ফোর্সের সঙ্গে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন। ১৪০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং ১০ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করবেন। এক ব্যাটেলিয়ন সেনাবাহিনী দেয়া হয়েছে। এটা আমাদের জন্য পর্যাপ্ত। তারা নির্বাচনের দিন টহল দেবে। ভোটার নির্বিঘ্নে আসবেন, পছন্দমত প্রার্থীকে ভোট দেবেন এবং নিরাপদে বাড়ি ফিরে যাবেন, এটাই নির্বাচন কমিশন চায় এবং সেটা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। তারাও নির্বাচন কমিশনের লক্ষ্যে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

বৈঠকে ২৫ এপ্রিল থেকে নির্বাচর্ন কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সমন্বয়ে একটি ‘আইনশৃঙ্খলা কন্ট্রোল সেল’ গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মতামত