টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

করপোরেশনকে টেন্ডারবাজি ও সন্ত্রাসের আঁচড় পড়তে দেইনি, মনজুর

bnpচট্টগ্রাম, ১৬ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস):: অসমাপ্ত কাজ সমাপ্তে নগরবাসীর ভোট চেয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী মনজুর আলম বলেন, ‘গত সাড়ে চার বছরে করপোরেশনকে দলীয়করণ করি নাই, টেন্ডারবাজি ও সন্ত্রাসের আঁচড় পড়তে দেইনি। সবাইকে সমান মূল্যায়ন করেছি। প্রতিশ্রুতির বেশীর ভাগই বাস্তবায়ন হয়েছে। তাই অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে আপনাদের খাদেম হিসেবে আগামী ২৮ এপ্রিল কমলা লেবু মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে জয়যুক্ত করবেন।’

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় নগরীর দেওয়ানহাট মডেল বেকারীর সামনের থেকে স্থানীয় বিএনপি নেতাদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ শুরু করেন মনজুর আলম।

এসময় ভোটার ও এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে মনজুর আলম বলেন, ‘বিগত ৫ বছরের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে নগরবাসীর সেবা করার জন্য আমি আবার মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছি। আগামী ৫ বছরে চট্টগ্রাম মহানগরীকে একটি উন্নত আধুনিক নগরীতে পরিণত করার পরিকল্পনা রয়েছে।’

নগরীর ডবলমুরিং থানার পোস্তারপাড়া, ধনিয়ালা পাড়া, দেওয়ান হাট, চৌমুহনী, পাঠানটুলি, মোগলটুলি এলাকায় গনসংযোগকালে খন্ড খন্ড পথ সভায় বক্তব্য রাখেন মনজুর আলম।

নির্বাচনী প্রচারণায় বাধাপ্রাপ্ত হওয়ার অভিযোগ তুলে মনজুর আলম বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচারনায় সকল প্রার্থীকে সমান অধিকার দেয়া প্রয়োজন। আমরা সবার অংশগ্রহনে আনন্দমুখর পরিবেশে একটি সুষ্ঠু শান্তিপূর্ন নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। এখন নির্বাচন কমিশনের উচিত সকল প্রার্থীর জন্য সে পরিবেশ সৃষ্টি করে দেয়া।’

মনজুর আলম বলেন, ‘আমি নির্বাচন আচরন বিধি মেনে প্রচারনা চালাচ্ছি। কিন্তু সরকারী দলের প্রার্থীর লোকজন আমার নির্বাচনী প্রচারনায় বাধা দিচ্ছে। সন্ত্রাস, ভীতি-আতংকজনক পরিবেশ তৈরী করে পরিস্থিতি অবনতির পায়তারা চালানো হচ্ছে।’

গনসংযোগকালে বিএনপি নেতা ও কাউন্সিলর নিয়াজ মো. খান, এসএম সাইফুল আলম,স্থানীয় কাউন্সিলর প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী বেগম ফাতেমা বাদশা, হাজী মো. হাসেম, আমীর হোসেন, হাজী মো. মহসিন, মহিলা দলের নেত্রী ফেরদৌস বাবুল, নাজমা আক্তার, নুসরাত, লুৎফা, নাসরিন, আফরোজা, কুলসুমা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মতামত