টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সালাহউদ্দিন-মুজাহিদের আপিল শুনানি ২৮ এপ্রিল

mujahid-sakaচট্টগ্রাম, ১৫  এপ্রিল (সিটিজি টাইমস)::ট্রাইব্যুনালে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদের আপিল শুনানির জন্য আগামী ২৮ এপ্রিল দিন ধার্য করেছে আদালত।

বুধবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কমুার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বিভাগ এই দিন ধার্য করে।

আপিল বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন- বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসাইন ও বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

এর আগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী ও জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের আইনজীবী শুনানির দিন পেছানোর আবেদন জানান। আদালত তা মঞ্জুর করে।

আদালতে আসামিপক্ষে আইনজীবী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- খন্দকার মাহবুব হোসেন ও শিশির মো. মুনির।

২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর মৃত্যুদণ্ড রায়ের বিরুদ্ধে সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী এবং ১১ আগস্ট আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদ খালাস চেয়ে আপিল করেন।

সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আপিলের অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড হচ্ছেন জয়নুল আবেদীন। মোট ১,৩২৩ পৃষ্ঠার মোট ডকুমেন্টসহ ২৭টি গ্রাউন্ডে এ মামলায় আপিল করা হয়েছে।

অন্যদিকে, মুজাহিদের আপিলের অন রেকর্ড হচ্ছেন জয়নুল আবেদিন তুহিন। মোট ৯৫ পৃষ্ঠার ১১৫টি গ্রাউন্ডে আপিল আবেদন করা হয়। মূল আবেদনের সঙ্গে ৩,৮০০ পৃষ্ঠার নথিপত্র সংযোগ করে জমা দেয়া হয়েছে।

২০১৩ সালের ১ অক্টোবর চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে গঠিত তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল-১ সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে এবং ১৭ জুলাই বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ মুজাহিদকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়ে রায় ঘোষণা করে।

হরতালে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগের একটি মামলায় ২০১০ সালের ১৬ ডিসেম্বর গ্রেপ্তার করা হয় বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে। পরে ১৯ ডিসেম্বর তাকে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

মানবতাবিরোধী অপরাধের ২৩টি অভিযোগে ২০১৩ সালের ৪ এপ্রিল অভিযোগ গঠনের মধ্যদিয়ে তার বিচারকাজ শুরু হয়।

অন্যদিকে, ২০১০ সালের ২৯ জুন আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০১১ সালের ১১ ডিসেম্বর ডিসেম্বর তার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করে প্রসিকিউশন। ২০১২ সালের ২৬ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেয় ট্রাইব্যুনাল।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত