টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নিরব বিপ্লবের ডাক খালেদার

1417324044চট্টগ্রাম, ১৪  এপ্রিল (সিটিজি টাইমস)::বর্তমান ‘অবৈধ’ সরকারের হাত থেকে দেশকে রক্ষার জন্য সিটি নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের ভোট দিয়ে নিরব বিপ্লব ঘটাতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

মঙ্গলবার বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) আয়োজিত নববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

পরিবর্তন ও উন্নয়নের জন্য ঢাকার দুই সিটিতে মির্জা আব্বাস ও তাবিথ আউয়াল আর চট্টগ্রামে সাবেক মেয়র মনজুর আলমের জন্য ভোট চান বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোট।

তিনি বলেন, ‘আজ দেশে মানুষের নিরাপত্তা নেই, চারিদিকে অরাজকতা। এরই মধ্যে সরকার সিটি নির্বাচন ঘোষণা করেছে। তারা ভেবেছিলে- ২০ দল সিটি নির্বাচনে আসবে না।’

সরকারকে উদ্দেশ্য করে খালেদা জিয়া বলেন, ‘তাদেরকে বলে দেই- আমরা জতীয় নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করছি। এ আন্দোলন অব্যহত থাকবে। এছাড়া সব স্থানীয় নির্বাচনে অংশ নিয়েছি, সেখানে আমরা জয়লাভ করেছি। সেসব নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে, এই জালিম সরকারকে জনগণ দেখতে চায় না।’

মির্জা আব্বাসের পক্ষে ভোট চেয়ে তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচনে ঢাকা সিটিতেও পরিবর্তন আসবে। মির্জা আব্বাস আগেও মেয়র ছিলেন, তিনি ঢাকাকে বাসযোগ্য করেছেন। এবারেও তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটিকেও সুন্দর নগরী হিসেবে গড়ে তুলবেন। তাকে আপনারা মগ মার্কায় ভোট দেবেন।’

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় থাকতে ঢাকাকে সুন্দর করেছি। এবার যানজট মুক্ত এবং পানি সমস্যার নিরসন করবো। মির্জা আব্বাসকে আবারো ভোট দিয়ে উন্নয়ন করার সুযোগ দেবেন।’

ঢাকা উত্তরের প্রার্থী তাবিথ আওয়ালের পক্ষে ভোট চেয়ে তিনি বলেন, ‘তাবিথ উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত, বিদেশ থেকে পড়াশোনা করে এসেছে। তরুণ এই ছেলের মাথায় নতুন নতুন আইডিয়া আছে। তিনিও উত্তর সিটিকে সুন্দর করে গড়ে দেবেন। তাবিথকে বাস মার্কায় ভোট দিয়ে উন্নয়নের সুযোগ করে দেবেন।’

জনগণকে নিরব ভোট বিপ্লব ঘাটানোর আহ্বান জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘এই সরকার অবৈধ। তাই তারা পদে পদে আইন লঙ্ঘন করছে। তাই নিরব ভোট বিপ্লব ঘটিয়ে জালিম সরকারকে দেখিয়ে দিন।’

বিগত সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ‘আমরা ছয় সিটিতে জিতেছি। পরিবর্তন হয়েছে, ঢাকা সিটিতেও পরিবর্তন আসবে। পরিবর্তনের প্রয়োজন রয়েছে। এখন যারা আছে, তারা চুরি করেছে। আমাদের প্রার্থীরা নির্বাচিত হলে ঢাকা সিটি আবারো সুন্দর হবে।’

এ সময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, সরকার সমর্থিত প্রার্থীরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে। অথচ প্রশাসন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের প্রচারণায় পদে পদে বাধা সৃষ্টি করছে।’

এরআগে গুলশানের বাসা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রওনা হয়ে ৫টার দিয়ে দিকে নয়াপল্টন দলীয় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পৌঁছান। এ সময় উপস্থিত হাজার হাজার নেতাকর্মী খালেদা জিয়াকে স্লোগানে স্লোগানে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানান। তিনিও তাদের হাত নেড়ে শুভেচ্ছার জবাব দেন।

এ সময় মঞ্চে ঢাকা সিটি উত্তরের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল এবং দক্ষিণের মেয়র প্রার্থী মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস উপস্থিত ছিলেন। তারা সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে সবার কাছে ভোট ও দোয়া চান।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ড. এমাজউদ্দীন আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রো-ভিসি আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ ও আহমেদ আযম, আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. আসাদুজ্জামান রিপন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মতামত